মাওয়া অংশের সম্পূর্ণ জমি বুঝে পায়নি সেতু কর্তৃপক্ষ

padmaNightViewপদ্মা সেতু নির্মাণের জন্য
বহুল আলোচিত পদ্মা সেতু নির্মাণের জন্য মাওয়া অংশের সম্পূর্ণ জমি এখনও বুঝে পায়নি সেতু কর্তৃপক্ষ। পদ্মা সেতুর মূল অবকাঠামো নির্মাণে চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি কাজ শুরু করলেও মূল সেতু নির্মাণের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ স্থানের ২৫ একর জমি দখল করে আছে মাওয়া ফেরিঘাট, লঞ্চঘাট ও স্পিডবোট ঘাট।

এ তিনটি নৌঘাট ব্যবহার করে দেশের দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ যাতায়াত করছেন। ফেরি, লঞ্চ ও স্পিডবোটের মাধ্যমে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ পদ্মা নদী (মাওয়া-কাওড়াকান্দি) পার হচ্ছেন। পদ্মাপাড়ের মাওয়া-কাওড়াকান্দি এলাকায় সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে এমন দৃশ্য।

গত জুনের মধ্যে ওই জমি সেতু কর্তৃপক্ষকে বুঝিয়ে দিতে নৌমন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষকে (বিআইডব্লিউটিএ) একাধিকবার তাগাদা দিয়েছিল যোগাযোগ মন্ত্রণালয়। কিন্তু অদ্যাবধি সেটি বাস্তবায়ন হয়নি। আগামী দুই মাসেও ওই জমি পদ্মা সেতু প্রকল্পে হস্তান্তর হবে কিনা তা নিয়ে সংশয়ে রয়েছেন পদ্মা সেতু প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। ফলে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ যথাসময়ে সম্পন্ন করা দুরূহ হবে বলে আশংকা করছেন তারা।

ক্রাইমবার্তা

Leave a Reply