শ্রীনগরে সালিশে উপস্থিত হতে দেরি হওয়ায়!

rape 48যৌন হয়রাণীর প্রতিবাদে
আরিফ হোসেনঃ শ্রীনগরে ভাবীকে যৌন হয়রাণীর প্রতিবাদ করার পর ক্লাবের ডাকা সালিশে উপস্থিত হতে দেরি হওয়ায় প্রথমে দেবরকে মারধর এবং পরে তাদের বাড়িঘরে হামলা ও ভাংচুর করেছে ক্লাবের লোকজন। শনিবার রাত আটটার দিকে উপজেলার বালাশুর বাঘা ডাঙ্গা এলাকায় এঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানায়, ঐ এলাকার উজ্জল (২৫) তার ভাবীকে নিয়ে বাঘা ডাঙ্গা পল্লী উন্নয়ন ক্লাবের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় ক্লাবের লোকজন উজ্জলের ভাবীকে কটুক্তি করে। উজ্জল এঘটনার প্রতিবাদ করায় ক্লাবের সদস্য স্বপন, জয়নাল, বিল্লাল, আল-আমিন ও হেলেন মৃধা সহ কয়েকজন মিলে তাকে মারধর করে। ঘটনাটি উজ্জল গ্রামের গন্যমান্য লোকদেরকে জানালে ক্লাবের লোকজন এতে আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এবং উজ্জলের নামে উল্টো সালিশ ডাকে। সালিশ মিমাংসায় উপস্থিত হতে দেরি হওয়ায় ক্লাবের লোকজন উজ্জলদের বাড়ি ঘরে হামলা চালায় ও ভাংচুর করে। হামলায় ঐ বাড়ির নারী পুরুষ সহ দশ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে মানিক, রতন, আল আমিন, উজ্জল ও শফি মাদবরকে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এব্যাপারে বাঘা ডাঙ্গা পল্লী উন্নয়ন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মহসীন আলী জানান, মেয়েলি ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ হয়েছে।

Leave a Reply