এমপি’র অর্ধশতাধিক ফেস্টুন বিনষ্ট : মামলা

bannerv3ঈদ ও পূজার শুভেচ্ছা জানাতে মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সরকার দলীয় এমপির ছবি সংবলিত অর্ধশতাধিক ফেস্টুন ও প্লা-কার্ড কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে শহরের গণপূর্ত ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় ফেস্টুন ও প্লা-কার্ড সাটানোর দায়িত্বরত সুমন (৩৫), মনজিল (২৪), ইকবাল (২৮) নামের তিন যুবককে এলোপাতাড়ি মারধর করেছে দুর্বৃত্তরা। ঘটনার পরপর আহতদের মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ছাত্রলীগ নেতা আবু বকর সিদ্দিক বাদী হয়ে শাহাজালাল মিজিকে প্রধান আসামি করে ৯ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ৭ থেকে ৮ জনকে আসামি করে সদর থানায় অভিযোগ দাখিল করেছেন।
bannerv3
অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা আবু বকর সিদ্দিক জানান, ঈদ ও পূজার শুভেচ্ছা জানাতে মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের এমপি ও কেন্দ্রীয় আ’লীগের উপ দফতর সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাসের পক্ষে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি সম্বলিত ৬০টি ফেস্টুন ও প্লা-কার্ড ভ্যানগাড়িতে করে শহরের বিভিন্ন স্থানে সাটাতে বের হয় সুমন, মনজিল ও ইকবাল নামের ৩ কর্মী।

তারা পৌরসভার কাটাখালী বাজারে ফেস্টুন সাটিয়ে শহরের আসার পথে জেলা প্রশাসক কার্যালয় সংলগ্ন গণপূর্ত ভবনের সামনে ভ্যানগাড়ি নিয়ে পৌঁছালে শাহাজালাল তার দলবল নিয়ে অর্তকিত হামলা চালায়।

এ সময় তারা ৩ কর্মীকে এলোপাথাড়ি মারধর করে এবং তাদের কাছে থাকা অর্ধশতাধিক ফেস্টুন ও প্লা-কার্ড ধারালো চাকু দিয়ে কেটে ফেলে বিনষ্ট করে। এমনকি ৩ কর্মীর কাছে থাকা মোবাইল ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি/তদন্ত) ইয়ারদৌস হাসান বাংলানিউজকে জানান, দাখিল করা অভিযোগের তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর

===================

বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি সম্বলিত অর্ধশতাধিক ফেস্টুন কর্তন

ঈদ ও পূজার শুভেচ্ছা জানাতে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী ও ছবি সম্বলিত মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-দফতর সম্পাদক মৃনাল কান্তি দাসের অর্ধশতাধিক ফেস্টুন ও প্ল্যা­কার্ড কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শহরের গণপূর্ত ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ফেস্টুন ও প্ল্যা­কার্ড সাটানোর দায়িত্বরত মো. সুমন (৩৫), মনজিল (২৪), ইকবাল (২৮) নামের তিন যুবককে এলোপাতাড়ি মারধর করেছে দুর্বৃত্তরা।

এ ঘটনায় রাতে ছাত্রলীগ নেতা আবু বকর সিদ্দিক বাদী হয়ে শাহাজালাল মিজিকে প্রধান আসামি করে সদর থানায় অভিযোগ দাখিল করেছেন।
bannerv1
অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা আবু বকর সিদ্দিক জানান, ঈদ ও পূজার শুভেচ্ছা জানাতে মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক মৃনাল কান্তি দাসের পক্ষে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি সম্বলিত ৬০টি ফেস্টুন ও প্ল্যা­কার্ড ভ্যান গাড়িযোগে জেলা প্রশাসক কার্যালয় সংলগ্ন গণপূর্ত ভবনের সামনে পৌঁছলে শাহাজালাল তার দলবল নিয়ে অর্তকিত হামলা চালায়। এসময় তারা তিন কর্মীকে এলোপাতাড়ি মারধর করে এবং তাদের কাছে থাকা অর্ধ-শতাধিক ফেস্টুন ও প্ল্যা­কার্ড ধারালো অস্ত্র দিয়ে কেটে ফেলে।
bannerv2
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) ইয়ারদৌস হাসান জানান, দাখিল করা অভিযোগের তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শীর্ষ নিউজ

Leave a Reply