শ্রীনগরে পুলিশের কাছ থেকে মাদক ব্যবসায়ী সায়েমকে ছিনতাই

সংঘর্ষে সাত পুলিশসহ আহত ১৫
আরিফ হোসেন: শ্রীনগরে পুলিশের উপর হামলা করে তালিকা ভূক্ত মাদক ব্যবসায়ীকে ছিনতাই করে নিয়ে গেছে তার সহযোগীরা। এসময় সংঘর্ষে সাত পুলিশসহ ১৫ জন আহত হয়েছে। শনিবার রাত আটটার দিকে শ্রীনগর থানা থেকে এক কিলোমিটার দূরে উপজেলার আরধী পাড়া নাপিত বাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শ্রীনগর থানার সেকেন্ড অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান ও এএসআই শওকত ঐ এলাকার তালিকাভূক্ত মাদক ব্যবসায়ী ও হত্যা সহ একাধিক মামলার আসামী সায়েম (৩৩) কে বিপুল পরিমান ইয়াবা সহ আটক করে। এসময় সায়েমের সহযোগীরা মোস্তাফিজ ও শওকতের উপর হামলা করে তাকে ছিনিয়ে নেয়। খবর পেয়ে শ্রীনগর থানায় কর্তব্যরত ১৫/২০ জন পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে মাদক ব্যবসায়ীরা মাইকিং করে লোকজন জড়ো করে তাদের উপড়ও হামলা চালায়। এতে এসআই মিজান, এএসআই আরফান, রাকিব, আশ্রাফ ও কনষ্টেবল নজরুল আহত হয়।

শ্রীনগর থানার ওসি (তদন্ত) মুজিবুর রহমান জানান, আহতদের মধ্যে এসআই মোস্তাফিজুর রহমান, এএসআই শওকত, আরফান ও কনষ্টেবল নজরুলকে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ইয়াবা ট্যাবলেট, ফেনসিডিল ও বিপুল পরিমান মাদক সেবনের সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় শরিফ (২৬), টিটু হোসেন (১৯) শাহিন হোসেন (২২), আজিজ শেখ (৪৫) নামে চার জনকে আটক করা হয়েছ।

অপরদিকে এলাকাবাসী দাবী করে, পুলিশ সায়েমকে আটক করে ছেড়ে দেওয়ার জন্য দর কষাকষির এক পর্যায়ে সায়েম পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে নিরিহ জনগনের উপর লাঠি চার্জ করে। এসময় অন্তত দশজন আহত হয়।

============

শ্রীনগরে মাদক ব্যবসায়ী-পুলিশ সংঘর্ষ : পুলিশসহ আহত ২০

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার তালিকাভূক্ত মাদক ব্যবসায়ী সায়েমকে (৩৫) গ্রেফতার কালে পুলিশ ও মাদক ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের সংঘর্ষে ৭ পুলিশসহ ২০ জন আহত হয়েছে।

শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার আরধীপাড়ার এলাকার নাপিত বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ সূত্র জানায়, সেকেন্ড অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান ও এএসআই মো. শওকতসহ পুলিশের একটি টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আরধীপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে সায়েমকে আটক করে। মাদক-হত্যাসহ একাধিক মামলার আসামি সায়েমেরে সহযোগীরা তাকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে এ সংঘর্ষ বাধে।

সূত্র আরো জানায়, ঘটনার সংবাদ পেয়ে শ্রীনগর থানার ১৫/২০ জনের একটি টিম ঘটনা স্থলে পৌঁছালে মাদক ব্যবসায়ীরা মাইকিং করে লোকজন জড়ো করে পুলিশের উপর হামলা চালায়। এ ঘটনায় সেকেন্ড অফিসার এসআই মোস্তাফিজুর রহমান, এসআই মিজান, এএসআই আরফান, এএসআই শওকত, রাকিব, আশরাফ ও কনস্টেবল নজরুল আহত হয়। এদের মধ্যে গুরুতর আহত সেকেন্ড অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান, এএসআই শওকত, আরফান ও কনস্টেবল নজরুলকে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাবুবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান; মো. সায়েমসহ ২০/২৫ জনের নামে মামলা প্রস্তুত করা হচ্ছে। মামলায় অজ্ঞাত আরো ১০ জন রয়েছে। এঘটনায় শরিফ (২৬), টিটু হোসেন (১৯) শাহিন হোসেন (২২), আজিজ শেখ (৪৫) নামে চার জনকে আটক করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, ঘটনাস্থল থেকে ৬ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট, ২ পিচ ফেনসিডিলসহ বিপুল পরিমাণ মাদক সেবনের সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে মাদকসহ কর্তব্যরত পুলিশের উপর হামলা করায় কয়েকটি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

শীর্ষ নিউজ

Leave a Reply