পদ্মা সেতুর প্যানেল এক্সপার্টরা বসুন্ধরা সিমেন্ট কারখানা পরিদর্শনে

বসুন্ধরা সিমেন্ট তৈরিতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার আর এর গুণগত মানের প্রশংসা করলেন তাঁরা। সেই সঙ্গে তাঁরা এই ধারাবাহিকতা বজায় রাখার আহ্বান জানালেন। পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্প প্যানেল এক্সপার্টের চেয়ারম্যানসহ আরো কয়েকজন প্রকৌশলী শনিবার বসুন্ধরা গ্রুপের সিমেন্ট কারখানায় গিয়ে এসব কথা বললেন।

গতকাল সকালে পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের প্যানেল এক্সপার্টের চেয়ারম্যান ও ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকের ভিসি প্রফেসর ড. জামিলুর রেজা চৌধুরীর নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি টিম শীতলক্ষ্যা নদীর পূর্ব পাড়ে বন্দরের মদনগঞ্জে অবস্থিত বসুন্ধরা সিমেন্ট ফ্যাক্টরি পরিদর্শন করে এসব কথা জানায়।

কারখানা পরিদর্শন করতে আসা টিমের অন্য তিনজন হলেন পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের প্যানেল এক্সপার্টের সদস্য ও ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির প্রফেসর অব ইমেরিটাস প্রফেসর ড. আইনুন নিশাত, পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের প্যানেল এক্সপার্ট সদস্য ও স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ভিসি প্রফেসর ড. এম ফিরোজ আহমেদ ও বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ইঞ্জিনিয়ার শফিকুল ইসলাম।

শনিবার সকালে বসুন্ধরা সিমেন্ট কারখানায় প্রতিনিধিদলকে স্বাগত জানান এখানকার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। পরে কারখানার কনফারেন্স রুমে বসুন্ধরা সিমেন্টের বিশেষত্ব, উৎপাদন প্রণালী, ব্যবহৃত মেশিনারিজ, যন্ত্রপাতি, কাঁচামালের উপকরণ, কোয়ালিটি কন্ট্রোল ল্যাবসহ সব আনুষঙ্গিক বিষয় সুচারুভাবে তুলে ধরা হয়। এ সময় পরিদর্শন করতে আসা প্রকৌশলীরা বিভিন্ন বিষয়ে জানতে চাইলে এর জবাব দেন বসুন্ধরার কর্মকর্তারা। কী কারণে মানুষ বসুন্ধরা সিমেন্ট ব্যবহার করবে এবং এটা বাজারের অন্য সিমেন্ট থেকে কেন আরো বেশি কার্যকর, কোয়ালিটিসম্পন্ন এরও ব্যাখ্যা দেওয়া হয়। পরে প্রতিনিধিদলটি ল্যাবরেটরি, উৎপাদনের বিভিন্ন সেক্টর, মেশিনারিজ পরিদর্শন করে।

পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরীর নেতৃত্বে একটি উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদল গতকাল বন্দরের মদনগঞ্জে বসুন্ধরা সিমেন্ট কারখানা পরিদর্শন করে।

পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্প প্যানেল এক্সপার্টের চেয়ারম্যান ও ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকের ভিসি প্রফেসর ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, ‘বসুন্ধরা বেশ উন্নত ও আধুনিক মেশিনারিজ ব্যবহার করছে। আশা করি তারা গুণগত মান ধরে রাখবে।’

এ সময় বসুন্ধরা সিমেন্ট কারখানার পক্ষে উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা সিমেন্ট কারখানার উপব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী মাহবুব উজ জামান, বসুন্ধরা গ্রুপের উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) মাহবুব হায়দার খান, বসুন্ধরা গ্রুপের হেড অব পিআর লে. কর্নেল (অব.) আবদুল ওয়াহেদ, বসুন্ধরা সিমেন্ট মদনগঞ্জ প্লান্টের জিএম এইচআর ও প্রশাসন মেজর (অব.) আবু মো. সরওয়ার ফিরোজ, বসুন্ধরা গ্রুপের মদনগঞ্জ প্লান্ট ইনচার্জ প্রকৌশলী এ কে এম সিরাজুল হক, বসুন্ধরা গ্রুপের মংলা ইনচার্জ প্রকৌশলী নবারুণ কুমার সাহা, সহকারী মহাব্যবস্থাপক (টেকনিক্যাল সাপোর্ট) সরোজ কুমার বড়ুয়া, ব্যবস্থাপক (মান নিয়ন্ত্রণ) মহব্বত আলী চৌধুরী, হেড অব ডিরেক্টর (ইলেকট্রিক্যাল) লক্ষ্মণ কুমার দে প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, এর আগে বুয়েট ও এলজিইডির একটি উচ্চপর্যায়ের দল কারখানা পরিদর্শন করে সন্তোষ প্রকাশ করেছিল।

কালের কণ্ঠ

Leave a Reply