‘পদ্মা সেতুর পরীক্ষামূলক মূল ভিত্তির কাজ মার্চে শুরু’

পদ্মা সেতুর পরীক্ষামূলক মূল ভিত্তির (টেস্ট পাইলিং) কাজ আগামী মার্চ মাসে শুরু হবে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৃহস্পতিবার নতুন বছরের শুভেচ্ছা বিনিময়ের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আগামী মার্চে পদ্মা সেতুর টেস্ট পাইলিংয়ের কাজ শুরু হবে। দুর্ঘটনা কমানো হবে আমাদের নতুন বছরের প্রথম অগ্রাধিকার। প্রকল্পের মাধ্যমে ১৬৫ কোটি টাকা ব্যয়ে দেশের ১৪৪টি ব্ল্যাক স্পট দুর্ঘটনার ঝুঁকিমুক্ত করা হবে।’

২০ হাজার ৫০৭ কোটি ২০ লাখ টাকা (দুই দশমিক ৯১৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার) টাকা ব্যয়ের পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের মাওয়া ও জাজিরা পয়েন্টে সংযোগ সড়ক (অ্যাপ্রোচ রোড) ও সার্ভিস এলাকার নির্মাণ কাজ অনেক দূর এগিয়ে গেছে। শুরু হয়েছে নদী শাসনের কাজও।

১২ হাজার ১৩৩ কোটি ৩৯ লাখ টাকায় মূল সেতু নির্মাণের কাজ পেয়েছে চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড।

দুর্নীতির ব্যাপারে কোনো আপোষ নেই জানিয়ে সড়ক ও সেতুমন্ত্রী বলেন, দুর্নীতি ৫ থেকে ৭ ভাগে কমিয়ে আনব আমরা। আমি বলি ‘করব না মোরা দুর্নীতি/সুফল পাবে দেশ-জাতি।’

তিনি বলেন, ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা, নছিমন, করিমনসহ অবৈধ যানবাহনের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হয়েছে, চলতি বছরে তা অব্যাহত থাকবে। সড়কের রাস্তা উদ্ধার অভিযানও অব্যাহত থাকবে। এ বিষয়গুলো আমাদের অগ্রাধিকার। কাজের মান ভালো করব এটা আমাদের নতুন বছরের অঙ্গীকার।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ঢাকা, চট্টগ্রাম, জয়দেবপুর ও ময়মনসিংহে সড়ক চার লেনের কাজ এ বছর শেষ হবে। এ বছরই মেট্রোরেলের টেন্ডার হবে। এ প্রকল্পের কাজ চলতি শুরু হয়ে শেষ হবে ২০১৯ সালে। আগামী জুনের মধ্যে কর্নফুলী টানেল নির্মাণের প্রস্তুতিমূলক কাজ শেষ হবে।

রূপগঞ্জের ভুলতায় একটি ফ্লাইওভার নির্মাণ করা হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, এজন্য একটি টেন্ডার আহ্বান করা হয়েছে। জাইকার অর্থায়নে দ্বিতীয় কাঁচপুর, মেঘনা ও গোমতী সেতু বছরের শেষে শুরু হবে।

সড়কমন্ত্রী আরো বলেন, এখানে শুধু কথাই হয় না, কাজও হয়। সব কাজে আমরা সফল হয়েছি এমনও নয়। আমরা সমালোচনা মেনে নিতে পারি। নতুন বছরে আমাদের একটি অঙ্গীকার হবে ২০১৪ সালের ভুলগুলো শোধরানো, সংশোধন করা।

দ্য রিপোর্ট

Leave a Reply