গজারিয়া ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ১৫ কি.মি. যানজট

বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের অবরোধের মধ্যেও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের গজারিয়া অংশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। মেঘনা সেতুর ওপর বাস দুর্ঘটনার কারণে শুক্রবার দুপুর ২টার দিক থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত এ যানজট ছিল। এতে গজারিয়া ও নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ অংশে প্রায় ১৫ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে এ যানজটে দুর্ভোগে পড়েন যাত্রীরা।

গজারিয়া থানার এস আই আলিমুর রাজী জানান, মেঘনা সেতুর ওপর দুইটি যানবাহনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে এ যানজটের সৃষ্টি হয়। বিকেল ৫টার দিকে গাড়ি দুইটি সরিয়ে নেওয়া হলে গাড়ির দীর্ঘ জট কমতে থাকে।

ঢাকার যাত্রাবাড়ি থেকে নোয়াখালীর চাটখিলের উদ্দেশে রওনা দেওয়া বাসযাত্রী মশিউর রহমান জানান, ৩ ঘণ্টায়ও তিনি গজারিয়া উপজেলার মেঘনা সেতু অতিক্রম করতে পারেননি।

পরিবার-পরিজন নিয়ে প্রাইভেটকারযোগে ঢাকা থেকে কুমিল্লার দাউদকান্দির উদ্দেশে রওনা দেওয়া আব্দুর রহমান জানান, মহাসড়কের গজারিয়া অংশের বালুয়াকান্দি এলাকায় এক ঘণ্টা ধরে তিনি আটকে আছেন।

এ ব্যাপারে গজারিয়া থানার ওসি (তদন্ত) আবু বকর সিদ্দিক জানান, মহাসড়কে গাড়ির প্রচন্ড চাপ রয়েছে। হরতাল-অবরোধেও আগের মতোই গাড়ি চলাচল করছে। শেষ খবর পর্যন্ত সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার পর এ যানজট ধীরে ধীরে খুলতে শুরু করে।

রাইজিংবিডি

Leave a Reply