দমকা হাওয়ার পরে ফাল্গুনের শুরুতেই হঠাৎ বৃষ্টি

দমকা হাওয়া ॥ ঘরবাড়ি, আমের মুকুলের ক্ষতি, রবিশস্যের উপকার
জেলার সর্বত্রই বৃষ্টি হয়েছে। মধ্যরাত থেকে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৬টা পর্যন্ত ৬ উপজেলায় ৪২ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে। গড় বৃষ্টি ৭ মিলিলিটার। টঙ্গীবাড়ি উপজেলায় সবচেয়ে বেশি ১৫ মিলিলিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়। সবচেয়ে কম বৃষ্টি হয়েছে সিরাজদিখান উপজেলায় ৩ মিলিলিটার।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক আব্দুল আজিজ এ তথ্য দিয়ে বলেন, এই বৃষ্টি এখানকার ফসলের জন্য রহমত। বিশেষ করে আলু এবং বোরো ধানের জন্য মহাউপকার হয়েছে। তিনি জানান, বৃষ্টি নিয়ে খনার বচন ‘যদি বর্ষে মাঘের শেষ, ধন্য রাজার পূর্ণ দেশ’। মাঘ শেষে ফাল্গুনের শুরুতে সেরকমই হলো। এতে আলুর জমির রোগ-বালাই ধুয়ে গেল।

জনকন্ঠ

Leave a Reply