সিরাজদিখানে দু’পক্ষের সংঘর্ষে শিশুসহ আহত ১২

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে দু’পক্ষের সংঘর্ষে শিশুসহ ১২ জন আহত হয়েছেন। বুধবার (২৫ মার্চ) দুপুর ২টার দিকে উপজেলার বালুরচর ইউনিয়নের খাসমহল বালুরচর গ্রামে এ সংঘর্ষ হয়। এ সময় ১০টি বসতঘর ও বিদ্যুৎ লাইনের তিনটি মিটার ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।

আহতদের মধ্যে- নুরুল ইসলাম (৫০), আল-আমিন (৩২), আলমগীর (২৮), মোর্শেদা (২৫), জাহানারা (৪৫), মাজেদা (৫০), রাকিব (১৮), সুলতানা (২২), জাহাঙ্গীর (২৫) ও শিশু সাইমনার (৫ মাস) নাম জানা গেছে।

আহত জাহাঙ্গীর ও নুরুল ইসলামকে ঢাকা মিটফোর্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি আহতদের স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, বাড়ির সীমানাকে কেন্দ্র করে হাবু মিয়ার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে জামির হোসেনের বিরোধ চলে আসছিল। বুধবার দুপুরে হাবু মিয়া এ জমিতে ড্রেন নির্মাণের চেষ্টা করলে জামির হোসেন বাধা দেয়।

এ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে হাবু মিয়ার লোকজন জামির হোসেনের বাড়ি-ঘরে হামলা চালায়। এ সময় বাড়িতে থাকা লোকজনদের মারধর ও ভাঙচুর শুরু করে। এতে উভয়পক্ষের মধ্যে সংর্ঘষ বেধে যায়।

সংঘর্ষ চলাকালে উভয়পক্ষের ১০টি বসতঘর ও তিনটি বিদ্যুৎ লাইনের মিটার ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।

সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়ারদৌস হাসান বাংলানিউজকে জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় বুধবার রাত ৮টা পর্যন্ত কোনো পক্ষই অভিযোগ দাখিল করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর

Leave a Reply