পেপারস মিলের বিসাক্ত বর্জ্যে গজারিয়ায় স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে গ্রামবাসী

সুমিত সরকার সুমন: মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া ম্যানস ফি পেপার লি: এর বর্জ্যে বিশাক্ত নদিতে মৎস শুন্য-ফসল ধংস ভয়াবহ স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ৯টি গ্রামের সাধারন মানুষ। মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া বাংলাদেশের অন্যতম শিল্প অঞ্চল হতে চলছে, এতে এলাকাবাসী গর্বিত। কিন্তু পরিতাপের বিষয় শিল্পায়ন প্রক্রিয়ার শুরুতেই শিল্প আইন-কে অমান্য করে চালু হওয়া কিছু শিল্পকারখানার বিষাক্ত বর্জ্য নিস্কাশন সংক্রান্ত জনস্বার্থ বিরোধে অনৈতিক কর্ম কান্ডে সমগ্র গজারিয়া আজ পরিবেশ, জিব বৈচিত্র্য ও প্রানহানি কর মারাক্তক এক ভয়াবহ প্রক্রিয়ায় জনজীবন ভয়ংকর হুমকির সম্মখীন হয়ে পড়ছে।

বাউসশিয়া এলাকার ম্যানস ফি পেপারস লি:এর বিশাক্ত বর্জ্যে কাজলা নদীর তিরে অবস্থীত মধ্যবাউশিয়া,টেকপারা, বক্তারকান্দি পুরানা বাউশিয়া, মনারকান্দি, চর বাউশিয়া, পোড়াচক বাউশিয়া, চৌদ্দকাউনিয়া ও কুমারিয়া সহ ৯ গ্রামারে প্রবাহ মান নদির পানি পরিনত হয়েছে ভয়ংকর বিষে।

এক সময় এই পানির পানযোগ্য লক্ষলোকের বহু কাজের সম্বল ছিল। দির্ঘ এক বছর দরে ব্যবহারে অনুপজুগি সমগ্র এলাকাবাসীর দম বন্ধ হওয়ার উপক্রমি দুর্গন্ধ ছরাচ্ছে। নদীর মৎস শুন্য হয়েছে এবং পানিবারলে বর্জ্যস্থ এলাকার ধান পাট ফসলের উপর ছরিয়ে পরেছে ফলে ফসল ধংশ করছে। পুর্বে বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত হলে পরিবেশ অদিধপ্ত কর্মকর্তা প্রায় চার লক্ষ টাকা জরিমানা করেন। কিন্তু প্রতিষ্ঠান কর্মকর্তারা কোন কর্নপাত করেন্না। পানি পানিদুষন পতিরোদ কমিটির উদ্যোগে শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় বাউশিয়া এম,এ, আজহার উচ্চবিদ্যালয় এর মাঠ প্রঙ্গনে আলোচনা সভার আয়জোন করা হয়েছে।

সভায় সবাপতিত্ত্ব করেন হাজী ফজলুল হক দেওয়ান, উদ্যোকত্ত্বা সাংবাদিক মস্তফা সারয়ার বিপ্লব, মোঃ বোরহান মাস্টার, মান্না মাস্টার, শাখাওয়াত হোসেন, আক্কাস আলী মোল্লা সরকারি মৎস কর্মকর্তা গজারিয়া উপজেলা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বিডিলাইভ

Leave a Reply