অভিনেত্রী শায়না দ্বিতীয় বিয়ে করলেন!

তারকাদের বহু প্রেম বা বহু বিয়ে নতুন কিছু নয়। বিশ্বের নানা দেশের তারকাদের পাশাপাশি আমাদের ছোট্ট এই শোবিজেও অনেক বড় তারকারাই একাধিক প্রেম-বিয়েতে জড়িয়েছেন।

কিন্তু সব কিছুরই একটা আকৃতি ছিলো, নিয়ম সিদ্ধতা ছিলো। ছিলো সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গির গুরুত্বও। তবে মেহেরজান খ্যাত অভিনেত্রী শায়না আমিন স্থাপন করলেন নতুন এক নজির। আগের স্বামীকে তালাক না দিয়েই তিনি দ্বিতীয়বারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন। স্বামী প্রবাসী মাসুদ রানা।

জানা যায়, এক জীবন গানের মডেল শায়না আমিন প্রথম গোপন বিয়ে করেন ২০১১ সালে আসাদুজ্জামান সেতুকে। বিয়ের ৩ বছরের মাথায় সেতুর সংসার থেকে চলে আসেন শায়না আমিন। কিন্তু সেখান থেকে কাগজ কলমে সম্পর্ক ছিন্ন করেননি তিনি।

এরপর কাজের সূত্র ধরে অভিনেতা ও নির্মাতা মাসুদ আকন্দের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান। অবশ্য সেটি খুব বেশিদিন টিকেনি। তারপর হঠাৎ করেই মিডিয়া থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিতে থাকেন শায়না। পাড়ি জমান যুক্তরাজ্যে। কিছুদিন পরই দেখা যায় মাসুদ রানা নামের এক প্রবাসীর সাথে ঘনিষ্ঠভাবে ছবি তুলে তা ফেসবুকে শেয়ার করছেন তিনি।

খবর নিয়ে জানা যায়, ওই মাসুদ রানাকে গেল এপ্রিলেই বিয়ে করেছেন শায়না। সেখানে উপস্থিত ছিলেন বরপক্ষের অনেকেই। তবে শায়নার পক্ষের কেউ ছিলেন কি না সেটি নিশ্চিত করতে পারেনি সূত্র। বর্তমানে লন্ডনে নতুন সংসার নিয়ে ভালোই দিন কাটাচ্ছেন এ অভিনেত্রী।

এদিকে শায়নার সাথে বিয়ের সকল সম্পর্ক শেষ হয়েছে কি না সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে শায়নার প্রথম স্বামী আসাদুজ্জামান সেতুর সাথে যোগাযোগ করলে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। তবে শায়নার ঘনিষ্ঠ সূত্র নিশ্চিত করেছে, সেতুর সাথে রাগারাগি করে তার বাড়ি থেকে চলে আসেন শায়না। তারপর আর তাদের দেখাও হয়নি। ডিভোর্সেরও প্রশ্ন আসে না। সেতুর পরিবারের ধারণা ছিলো, রাগ কমে গেলেই ছেলের বউ ঘরে ফিরবে। আদতে হলো তার উল্টো। এ মুহূর্তে ছেলের বউ নিয়ে তাদের মন্তব্য জানা যায়নি।

কিন্তু এ বিয়ে নিয়ে সমালোচনা চলছে নাটক পাড়ায়। সবাই বলাবলি করছেন, প্রথম স্বামীর সাথে সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষ না করে নতুন করে বিয়ে করাটা কোনো ধর্মেই সিদ্ধ নয়। জেনেশুনে এমন একটি ভুল কাজ শায়নার মতো দক্ষ আর মেধাবী অভিনেত্রী কীভাবে করলেন!

প্রাইম নিউজ

Leave a Reply