বাসাইলে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৫

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার বাসাইল ইউনিয়নে বিদ্যুৎ নেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল বুধবার উত্তর পাথরঘাটা গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

আহত ব্যক্তিরা হলেন উত্তর পাথরঘাটা গ্রামের জমির আলীর স্ত্রী আনোয়ারা বেগম, জমির আলীর বড় ছেলে রনি মিয়া, নূর মোহাম্মদ, তাঁর ছেলে আলামীন, নাজমা বেগম, শহিদুলের স্ত্রী ইয়াসমিন বেগম, রনি মিয়ার স্ত্রী মাকসুদা বেগম।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল সকালে উত্তর পাথরঘাটা গ্রামের আমানউল্লাহ মোল্লা পাশের বাড়ির নূর মোহাম্মদের ঘর থেকে জোর করে তার দিয়ে বিদ্যুৎ নিতে চান। এতে দুজনের মধ্যে তর্কবিতর্ক হয়। একপর্যায়ে এ নিয়ে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে দুই পক্ষ হামলা চালায়।

এ ঘটনায় জমির আলীর ছোট ছেলে জাকির হোসেন বাদী হয়ে ওই দিনই পাঁচ-ছয়জনকে আসামি করে সিরাজদিখান থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। জাকির হোসেন বলেন, ‘আমানউল্লাহ মোল্লাসহ চার-পাঁচজন জোর করে বিদ্যুৎ নিতে চাইলে আমরা বাধা দিই। এতে ওরা আমাদের রামদা, লোহার রড ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে।’

আমানউল্লাহ মোল্লা অভিযোগ করেন, নূর হোসেনের লোকজন তাঁদের উল্টো মারধর করেছে।

প্রথম আলো

Leave a Reply