অবশেষে টঙ্গীবাড়ীতে ধর্ষিতার বিয়ে

ফিরোজ আলম বিপ্লবঃ টঙ্গীবাড়ীতে এক গৃহবধূ ধর্ষনের শিকার হওয়ার ২ দিন পর বুধবার রাত ৯টায় বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। এর আগে ধর্ষিতার বিচার নিয়ে ২দিন গ্রাম্য শালিশীরা বিভিন্ন তালবাহনা করে। ধর্ষকের কাছ থেকে টাকা খেয়ে কতিপয় গ্রাম্য মাতবর বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে। পরে স্থাণীয় লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে উঠলে বিচার শলিশীর মাধ্যমে বিয়ে সম্পন্ন করতে বাধ্য হয়।

জানাগেছে, ওই ধর্ষিতার উপজেলার পাঁচগাও ইউনিয়নের চিত্রকরা গ্রামের রুহুল আমিন দেওয়ানের ছেলে মোশারফ দেওয়ানের সাথে পারিবারিক ভাবে ৩মাস পূর্বে বিয়ে হয়। বিয়ে হওয়ার ২মাস পর স্বামী মোশারফ ওমান চলে যায়। গত সোমবার রাত ১০টার পাশের বাড়ীর ছাত্তার নোওয়াবের ছেলে লম্পট কামাল নোওয়াব জোর করে ওই গৃহবধূকে ধর্ষন করে।

এই ঘটনা নিয়ে বুধবার শালিশ বসলে স্থানীয়রা ধর্ষক কামালের সাথে বিয়ে দেওয়ার সিন্ধান্ত নেয়। গৃহবধূ জানান কামালে সাথে আমার ২বছর যাবত প্রেমের সর্ম্পক রয়েছে আমাকে বিয়ে করবে বলে আমার সাথে সে প্রতারনা করে। আমার অন্যত্র বিয়ে হয়ে যায় ওই স্বামীর ঘর থেকে চলে আসার জন্য বিভিন্ন ভাবে আমাকে হুমকি দেয়। পরে আমার সাথে সে জোর করে মিলামেশা করে।

এদিকে ধর্ষক কামাল জানান গ্রাম্য কিছু মাতব্বর বিয়ে যাতে না হয় সব সমস্যা সমাধান করে দিবে বলে আমার নিকট থেকে ৪৫হাজার টাকা নেয়। এখন আমার টাকার কি উপায়। স্বপন মেম্বার, সওদাগর হাওলাদার দুলাল ঢ়াড়ী জানান কতিপয় মাদবর বিষয়টিকে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছিলো। কিন্তু এলাকাবাসী দাবী ও ধষর্ক ও ধর্ষিতার শিকাররোক্তি মোতাবেক তাদের বিয়ে দেওয়া হয়েছে।

বিক্রমপুর চিত্র

2 Responses

Write a Comment»
  1. amon rem koirona je remer mollo nai meyera akto sorol prokitir tai somaje ai obosta….

  2. সু বিচার নিশ্চিত করার জন্য
    সবাইকে ধন্যবাদ

Leave a Reply