শ্বাশুড়িকে গলাটিপে হত্যার চেষ্টা মেয়ে জামাতার!

মুন্সীগঞ্জ শহরে বসত-ঘরে ঢুকে রাতের আঁধারে হাত-পা বেঁধে সালমা বেগম (৪০) নামে শ্বাশুড়িকে গলাটিপে হত্যার প্রচেষ্টা চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে মেয়ে জামাতার বিরুদ্ধে। শ্বাশুরি সালমা বেগমকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার রাতে শহরের দেওভোগ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

সদর থানার ওসি ইউনুচ আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, বসত-ঘরের ভেতর প্রবেশ করে মেয়ে জামাতা রতন মন্ডল তার শ্বাশুরি সালমা বেগমকে হত্যার উদ্দেশ্যে হাত-পা বেঁধে গলা টিপে ধরে। এ সময় বসত-ঘরে সালমা বেগমের পরিবারের অন্য কোন সদস্যরা ছিলেন না।

সালমা বেগম মারা গেছেন ভেবে রতন বসত-ঘর ত্যাগ করে। ঘটনার প্রায় এক ঘন্টা পর স্বামী আবুল কালাম আজাদ ঘরে এসে স্ত্রী সালমা বেগমকে অজ্ঞান অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসে।

প্রায় ২ বছর আগে দেওভোগ এলাকার সালমা বেগমের মেয়ে আয়েশা সিদ্দিকা বাঁধনের সঙ্গে একই এলাকার মৃত কায়কোবাদ মন্ডলের ছেলে রতন মন্ডলের বিয়ে হয়। বনিবনা না হওয়ায় গেল বছর তাদের বিয়ে বিচ্ছেদ হয়।

গজারিয়া নিউজ

Leave a Reply