সন্ত্রাসী হামলার ভয়ে টঙ্গীবাড়ীতে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন ৩ ভাই

টঙ্গীবাড়ী উপজেলার উত্তর পাইকপাড়া গ্রামে সন্ত্রাসী হামলার ভয়ে একই পরিবারের ৩ ভাই আতœগোপন করে দিন কাটাচ্ছেন। এর আগে সর্বশেষ শুক্রবার রাত ২টার দিকে উত্তর পাইকপাড়া গ্রামের জাকির হোসেন, সুমন, আওলাদ হোসেন ৩ ভাইয়ের বাড়িতে হামলা চালায় দূর্বত্তরা। এ সময় আতœগোপনকারী ৩ ভাই বাড়িতে না থাকায় আওলাদ এর স্ত্রী ইয়াসমিন এবং সুমন এর স্ত্রী শিউলী চিৎকার করলে দূর্বত্তরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় শিউলী বাদী হয়ে শনিবার টঙ্গীবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

জানাগেছে, উত্তর পাইকপাড়া গ্রামের মৃত সানু মিয়ার মাদকাশক্ত ছেলে সুজন এর সাথে স্ত্রী ঝর্না বেগম এর পারিবারিকভাবে বিরোধ চলে আসছিলো। এনিয়ে ঝর্ণা মুন্সীগঞ্জ আদালতে গত ফেব্রুয়ারী মাসে নারী ও শিশু মোকদ্দমা দায়ের করেন। পরে সুজনের প্রতিবেশী ইউনুস, মেওরা ওরফে মাওলানাগংরা সুজনের স্ত্রী ঝর্না এর পক্ষ নেওয়ায় দুই গ্রুপ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এনিয়ে সুজন ও ইউনুস গংদের মধ্যে একাধিক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে এবং একাধিক মামলা মোকদ্দমায় ২ গ্রুপ জড়িয়ে পড়ে । পরে সুজন আতœগোপন করলে সুজনের অপর ৩ নিরীহ ভাই জাকির হোসেন, সুমন, আওলাদ এর উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। এনিয়ে গত ১৮ এপ্রিল আওলাদ, ১৭ই জুলাই জাকির হোসেন, ২১ জুলাই সুজন বাদী হয়ে টঙ্গীবাড়ী থানায় সাধারণ ডায়রী করে।

পরে সন্ত্রাসী হামলা ও হুমকী দামকির ভয়ে গত ১৯ জুলাই হতে বিভিন্ন স্থানে আতœগোপন করে দিন কাটাচ্ছে ওই ৩ ভাই । জাকির , সুমন, আওলাদ জানান, আমার ভাই নেশাগ্রস্থ তার সাথে স্ত্রী ও এলাকার অন্যান্য ব্যাক্তিবর্গের সাথে একাধিক মামলা মোকদ্দমা থাকায় সে আতœগোপন করে আছে। এ নিয়ে আমাদের উপর হামলা করছে তার স্ত্রীর লোকজন। আমরা প্রাণভয়ে বিভিন্ন স্থানে আতœগোপন করে দিন কাটালেও আমাদের পরিবারের সদস্যদের হুমকী দামকি এবং বাড়িঘরে সন্ত্রাসী হমলা করছে সুজনের স্ত্রীর লোকজন।

বিক্রমপুর চিত্র

Leave a Reply