বিনোদপুরে আদালতের আদেশ অমান্য করে চলছে বালু ভরাট

নাদিম মাহমুদ: আদালতের নির্দেশ অমান্য করে মুন্সীগঞ্জ সদরে এক সংখ্যালঘু পরিবারের সম্পত্তি দখল করে বালু ভরাট করছেন এক প্রভাবশালী ব্যক্তি। সদরের বিনোদপুর এলাকায় প্রয়াত হরে কৃঞ্চ রায়ের ১৪ শতাংশ সম্পত্তি দখল করে চলছে এ বালু ভরাটের কাজ।

হরে কৃঞ্চ রায়ের ছেলে কাশীনাথ রায় অভিযোগ করেন, সম্পত্তি দখল ও বালু ভরাট কাজ চালাচ্ছে স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তি শাহাবুদ্দিন মেম্বার। তার লোকজন গত ৩ দিন ধরে সম্পত্তিতে জোর করে বালু ভরাটের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

তিনি জানান, সম্পত্তির মালিকানা নিয়ে সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা চলছে। ওই মামলা চলাকালীন আদালত সম্পত্তিতে স্থিতিশীলতা বজায় রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। মুক্তারপুর নৌ-ফাঁড়ি পুলিশের এসআই মো. ফয়সাল আলমের সাক্ষরে আদালতের স্থিতিশীলতা বজায় রাখার নির্দেশের নোটিশ পর্যন্ত দেওয়া হয়েছে। পুলিশ কয়েক দফা বালু ভরাট কাজ বন্ধ করে দেওয়া সত্ত্বেও প্রতিপক্ষ প্রভাবশালী ব্যক্তি সম্পত্তি দখল করে বালু ভরাট কাজ অব্যাহত রেখেছে।

২৫ অক্টোবর সকালে সরেজমিনে বিনোদপুর রাইয়ানী বাড়ি এলাকায় গিয়ে বালু ভরাটের প্রমাণ পেয়েছেন সংবাদ কর্মীরা।

এ সময় সংবাদ কর্মীদের উপস্থিতিতে প্রয়াত হরে কৃঞ্চের ছেলে কাশীনাথের পরিবারকে মেরে ফেলার হুমকি দিতে দেখা গেছে প্রতিপক্ষকে।

এদিকে, কাশীনাথ রায় এ হুমকি প্রদানের ঘটনায় সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

তারপরও কাশীনাথের পরিবার প্রভাবশালী ব্যক্তির লোকজনের হাতে মারধর খাওয়ার ও প্রাণ হারানোর ভয়ে ভীত-সন্ত্রস্ত।

কাশীনাথের দাবি, এটি তার পৈত্রিক সম্পত্তি। জোরপূর্বক ওই সম্পত্তি দখল করে এখন বালু ভরাট করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রপ্ত কর্মকর্তা ইউনুছ আলী জানান, পুলিশ গিয়ে বালু ভরাট কাজ কয়েক দফা বন্ধ করে দেয়। এ বিষয় নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। দুই পক্ষকেই স্থিতিশীলতা বজায় রাখার কথা বলা হয়েছে।

ঢাকাটাইমস

Leave a Reply