মাওয়ায় প্রধানমন্ত্রীর অপেক্ষায় জনতা

মাওয়ায় আওয়ামী লীগ আয়োজিত প্রধানমন্ত্রীর জনসভা সফল করতে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ইতোমধ্যে মাওয়া চৌরাস্তা সংলগ্ন খানবাড়ী একালার মঞ্চ প্রস্তুত করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর এই সমাবেশে আড়াই লাখ লোকের সমাবেশ ঘটবে বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন। বিকাল ৩টায় সমাবেশ শুরু হবে।

জনসভাকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। নিরাপত্তায় আড়াই হাজার পুলিশের পাশাপাশি বিপুল পরিমাণ র‌্যাব ও সেনাবাহিনীর কর্মকর্তাদের প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

শত ভাগ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রস্তুতি নিয়েছে মুন্সীগঞ্জ জেলা পুলিশও।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে দলে দলে মানুষ জনসভাস্থলের দিকে ছুটছেন। তারা বিভিন্ন শ্লোগান দিয়ে সমাবেশের দিতে আসছেন। এখন শুধু অপেক্ষা প্রধানমন্ত্রীর আগমনের।

এর আগে লৌহজং উপজেলার মাওয়া খানবাড়ী এলাকায় দক্ষিণ-পশ্চিমবঙ্গের ২৩ জেলার কোটি মানুষের স্বপ্ন পদ্মা সেতুর মূল অবকাঠামোর পাইলিং কাজের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের দোগাছি এলাকা থেকে শুরু করে মাওয়া চৌরাস্তা পর্যন্ত দীর্ঘ এলাকা সেজেছে বড় আকারের বিলবোর্ড, ব্যানার, ফেস্টুন আর তোরণে। মহাসড়কের পাশে লাগানো হয়েছে বর্ণিল পতাকা।

জনসভা মঞ্চের চারিদিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ও প্রধানমন্ত্রী ছবি সম্বলিত ব্যানার ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে। পদ্মার দুপাশে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। আর মুন্সীগঞ্জবাসী অপেক্ষা করছেন প্রধানমন্ত্রীর আগমনের। স্রোতহীন শান্ত পদ্মার তীরে ছড়িয়ে পড়ছে আনন্দ উচ্ছ্বাসের ঢেউ।

ঢাকাটাইমস

Leave a Reply