‘যৌতুকের দাবিতে’ স্ত্রীকে পেটালেন বিজিবি সদস্য

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ীতে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে এক বিজিবি সদস্যর বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার উপজেলার পূর্ব আউটশাহী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে জানান টঙ্গীবাড়ী থানার এসআই জাহাঙ্গীর আলম।

আহত শারমিন আক্তার (২৪) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তিনি ওই এলাকার জাকির হাওলাদারের স্ত্রী।
জাকির (৩২) বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) রাজশাহী অঞ্চলের লাইনম্যান পদে কর্মরত।

ঘটনার পর থেকে জাকির ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছেন বলে জানান এসআই।

শারমিনের পরিবারের বরাত দিয়ে এসআই জাহাঙ্গীর বলেন, দুই বছর আগে জাকিরের সঙ্গে শারমিনের বিয়ে হয়।এরপর থেকেই যৌতুকের দাবিতে জাকির ও তার পরিবারের লোকজন নির্যাতন চালিয়ে আসছিল।

“এর জেরে মঙ্গলবার সকালে তারা শারমিনের উপর আবার নির্যাতন চালায়। এতে শারমিন অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে প্রথমে টঙ্গীবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।”

শারমিনের চাচা ইসমাইল খান বিডিনিউজ টোয়োন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “বিয়ের ছয়মাস পর জাকির ও তার মা জাহানারা বেগম যৌতুকে জন্য আমার ভাতিজিকে নির্যাতন করলে আমরা তিন লাখ টাকা দেই। সম্প্রতি আরও দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে তারা।

“এর জেরে সকালে তারা শারমিনকে পিটিয়ে কান ও মুখে গুরুতর জখম এবং হাত ভেঙ্গে ফেলে। খবর পেয়ে আমরা হাসপাতালে নিয়ে যাই।”

এ ঘটনায় শারমিনের মা বাদী হয়ে জাকিরসহ পাঁচজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেছেন।

জাকির ও তার পরিবারের লোকদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালানো হচ্ছে বলে জানান এসআই।

বিডিনিউজ

Leave a Reply