শ্রীনগরে ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যানের মুক্তির দাবীতে ঢাকা-দাহার সড়ক অবরোধ

আরিফ হোসেন: শ্রীনগরে ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত এক ইউপি চেয়ারম্যানের মুক্তির দাবীতে ঢাকা-দাহার সড়ক অবরোধ করেছে এলকাবাসী। শুক্রবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত প্রায় ৭ হাজার নারী-পুরুষ ঢাকা-দোহার সড়কের আল আমিন বাজার থেকে তালুকদার বড়ী পর্যন্ত প্রায় তিন কিলোমিটার রাস্তায় অবস্থান নেয়। এসময় ওই রাস্তায় সকল প্রকার যানবাহন বন্ধ হয়ে যায়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

অবরোধে অংশগ্রহনকারীরা জানায়, ২০০১ সালের ৭ জুলাই বাঘড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আইয়ূব আলীকে হত্যার উদ্দেশ্যে বাঘড়া স্বরুপ চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন নিকারী বাড়ীতে পরাজিত চেয়ারম্যান মনোয়ার আলী তার স্বশস্ত্র ক্যাডার বাহিনীর সদস্য দুলাল, হাশেম ও বাদশাসহ কয়েকজকে নিয়ে অবস্থান নেয়। সংবাদ পেয়ে আইয়ূব আলীর লোকজন ওই বাড়ী ঘেড়াও করলে বাদশার গুলিতে আইয়ূব আলীর ভাতিজা আলাউদ্দিন নিহত হয়। এঘটনাকে কেন্দ্র করে ওইদিন পুলিশের উপস্থিতিতে দুগ্রুপের মধ্যে দিনব্যাপী সংঘর্ষ হয়।

এতে পুলিশ সহ ২ শতাধিক আহত হয় ও ইসমাইল নামে আইয়ূব আলী গ্রুপের আরেকজন মারা যায়। পরে বিকালে উত্তেজিত জনতা পুলিশের কাছ থেকে হ্যান্ডকাফ পরিহিত অবস্থায় মনোয়ার আলী, বাদশা ও হাশেম আলীকে ছিনিয়ে নিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। এতে আইয়ূব আলীকে হুকুমের আসামী করে শ্রীনগর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। মামলা চলাকালীন সময়েও ২০০৩ সালে আইয়ূব আলী জেলে বসে একবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। মমলায় আদালত ২০০৫ সালে আইয়ূব আলীর বিরুদ্ধে ফাঁসির রায় প্রদান করে। আপিল বিভাগ ২০১৩ সালে এ রায় বহাল রেখে রায় প্রদান করে। সম্প্রতি আইয়ূব আলী রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণ ভিক্ষা করে ব্যার্থ হন। এসংবাদে এলাকাবাসী ক্ষুদ্ধ হয়ে গতকাল ঢাকা-দোহার সড়কে অবস্থান নিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয় এবং আইয়ূব আলীর মুক্তি দাবী করে।

Leave a Reply