সিরাজদিখানে শেষ মূহুর্তে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণায় উৎসব মূখর পরিবেশ

সুজন: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান ইউপি নির্বাচনের প্রথম ধাপের ২২ মার্চ নির্বাচন উপলক্ষে প্রচার-প্রচারণায় শেষ মুহুর্তে উৎসব মুখর হয়ে উঠেছে। উপজেলার বিভিন্ন ইউপির প্রত্যন্ত এলাকার গ্রাম-গঞ্জের পথে-প্রান্তরে, মাটে-ঘাঠে, চা-স্টল, রাস্তা-ঘাট, হাট-বাজার ও প্রতিষ্ঠানে প্রার্থীদের পোস্টার ও ব্যানারে ছেঁয়ে গেছে। নির্বাচনের দিনক্ষণ যতই ঘনিয়ে আসছে প্রার্থী ও প্রার্থীর কর্মীরা স্ব-স্ব প্রতীকের পক্ষে নির্বাচনী মাঠে সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত ততই সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তারা ভোটারদের বাড়ি-বাড়ি, হাটে-বাজারে, অলি-গলির চায়ের দোকান গুলোতে নাওয়া-খাওয়া ছেড়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। অনেক প্রার্থী রোদ-বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিরামহীনভাবে ভোটারদের দুয়াড়ে-দুয়াড়ে কড়া নাড়ছেন। মাইকিং, গনসংযোগ, মটর সাইকেল মহড়া এবং উঠান বৈঠকের মাধ্যমে প্রচারণা চালাচ্ছেন দলীয় চেয়ারম্যান, মেম্বার ও সংরক্ষিত মহিলা প্রার্থীরা।

চলমান প্রচার প্রচারণায় যোগ হয়েছে ভিন্নমাত্রা। সিরাজদিখানে ১০টি ইউপিতে প্রার্থীরা ভোটারদের মন আকৃষ্ট করতে দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। কে হবেন ইউপি চেয়ারম্যান তা নিয়ে সাধারণ ভোটাররা অংক কষছেন। তারা প্রার্থীদের সততা, যোগ্যতা, সামাজিক কর্মকান্ড, শিক্ষা-দীক্ষাসহ নানা দিক নিয়েও চুল চেড়া বিচার-বিশ্লেষণ করছেন। তবে প্রার্থী উন্নয়নের ফুলঝুড়ি ছোড়লেও ভোটাররা যোগ্য প্রার্থীকেই খুঁজে নিবেন। এ নির্বাচনে ৩৭ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে আওয়ামী লীগের ১০ জন, বিএনপির ১০ জন ও অন্যান্য দল সহ স্বতন্ত্র ১৭ জন প্রার্থী রয়েছে। তার মধ্যে জৈনসার ইউপিতে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সৈয়দ আফজাল আহমেদ জানান, আমাদের নির্বাচনী প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। আজই (শনিবার) ব্যালট পেপারসহ আনুসাঙ্গিক জিনিসপত্র চলে আসবে। প্রশাসন আমাদের সহযোগিতা করলে আমরা একটি ফেয়ার নির্বাচন উপহার দিতে পারব।

স্বাধীনবাংলা

Leave a Reply