ইউপি নির্বাচন: পঞ্চসারে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে কৌতূহল

মোজাম্মেল হোসেন সজলঃ ব্যাপক আলোচিত শহর লাগোয়া পঞ্চসার ইউনিয়নে অবশেষে আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাদের ভাগ্যেই জুটেছে নৌকার টিকিট। বিএনপি থেকে সদ্য যোগদান করা গোলাম মোস্তফাকে মনোনীত করে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি কেন্দ্রে সুপারিশ পাঠালেও তা আটকে গেছে। নানা অভিযোগে গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদনে গোলাম মোস্তফার নৌকা প্রতীক আটকে দেয় কেন্দ্র।

এ ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের জন্য মনোনীত করা হয়েছে পঞ্চসার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলমগীর খানকে। তবে তিনি দলীয় কতিপয় নেতার ঝক্কিঝামেলায় নির্বাচন করতে প্রস্তুত নন। তিনি জানিয়েছেন, পঞ্চসারের স্থানীয় দলীয় নেতাদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবেন। তিনি নির্বাচন না করলে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট গোলাম মাওলা তপন কিংবা পঞ্চসারের আওয়ামী লীগ এবং বিএনপি আমলে দুই মেয়াদের চেয়ারম্যান প্রয়াত আশোক আলীর ভাই আব্দুস সাত্তার পোদ্দার দলীয় প্রতীক পাচ্ছেন বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছেন। আব্দুস সাত্তার পোদ্দার সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি। তবে অ্যাডভোকেট গোলাম মাওলা তপন নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন।

আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি নেতা গোলাম মোস্তফা ও মো. আক্তার হোসেন আওয়ামী লীগে যোগদান করেন। এরপর থেকে পঞ্চসারে আলোচনা শুরু হয় কে পাচ্ছেন নৌকার টিকিট। সেখানকার ত্যাগী নেতাকর্মীরা নিশ্চুপ হয়ে যায়। বিএনপি থেকে যোগদানকৃত দুইজনকে নব্য আওয়ামী লীগার আখ্যায়িত করে দলের নেতাদের প্রতি ক্ষোভ ও নিন্দা জানান তারা। এরই মধ্যে কেন্দ্রে পৌঁছে যায় যোগ দেয়াদের আমলনামা। এতে ক্ষিপ্ত হয় কেন্দ্রের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ। যোগ দেয়া দুজনের কাউকেই নৌকা প্রতীক না দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র। এক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতারাই পাচ্ছেন নৌকার টিকিট। ৫০ হাজার ১৭৭ ভোটার অধ্যুষিত পঞ্চসার শিল্পনগরী খ্যাত এ ইউনিয়নে আগামী ৭ই এপ্রিল মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। নির্বাচন আগামী ২৭শে মে বলে জানিয়েছেন সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ মুরাদ উদ্দিন হাওলাদার।

বিএনপি থেকে চেয়ারম্যান পদে এবারও নির্বাচন করছেন বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ হাবিবুর রহমান। তিনি গত দুই মেয়াদ ধরে এ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান। জেলা বিএনপির সভাপতি আবদুল হাই ও তার ছোট ভাই সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ মহিউদ্দিন আহাম্মেদ এ ইউনিয়নের অধিবাসী। মহিউদ্দিন আহাম্মেদের ঘনিষ্ঠ বন্ধু চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান। ওদিকে, চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের লক্ষ্যে গোলাম মোস্তফা আওয়ামী লীগে যোগদান করলেও পঞ্চসার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের অনেকেই তাকে গ্রহণ করে নিতে পারেনি। অভয় পেয়ে গোলাম মোস্তফা স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বলে জানা গেছে।

স্থানীয়রা জানান, স্বাধীনতা পরবর্তীকাল থেকে এ ইউনিয়নে বেশিরভাগ সময় বিএনপি সমর্থিতরা চেয়ারম্যান পদে জয়লাভ করেন। পঞ্চসারের আধিপত্যে ভাগ বসাতে বারবার ব্যর্থ হয়েছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ। এ ইউনিয়নের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিগত দিনে অসংখ্য রাজনৈতিক সহিংসতা হয়েছে। এ রাজনৈতিক সহিংসতা ও আক্রোশের কারণে খুনের শিকার হয়েছেন বেশ কয়েকজন।

মানবজমিন

Leave a Reply