দুই কেন্দ্র স্থগিত: মুন্সীগঞ্জে সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ৫

পাঁচজনের কারাদণ্ড
মুন্সীগঞ্জে ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের ঘটনায় দুটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। সংঘর্ষে পুলিশসহ পাঁচজন আহত হয়েছে। বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে পাঁচজনকে।

টঙ্গীবাড়ির ইউএনও তাজিনা সারোয়ার জানান, উপজেলাটির যশলং ইউপির সেরাজাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুর্বৃত্তরা ব্যালট পেপার ছিনতাই করে পালিয়ে যায়। পরে নির্বাচন কমিশনের পরামর্শ অনুযায়ী কেন্দ্রটিতে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়।

এদিকে, দুপুরে সদর উপজেলার রামপাল ইউপির কাজী কসবা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের ঘটনায় ভোটগ্রহণ স্থগিত হয়ে যায়। একই ইউনিয়নের মিলকীপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র দখলের চেষ্টাকালে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এ সময় পুলিশের এক এএসআইসহ পাঁচজন আহত হন। আহত পুলিশ কর্মকর্তা রবিউল ইসলামের মাথা ফেটে গেছে বলে জানা গেছে। তাঁকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি ও সংঘর্ষের সময় পুলিশ তিন রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এ সময় পুলিশের পিস্তলের ম্যাগজিন খোয়া যায়। পরে পুলিশ ম্যাগজিনটি উদ্ধার করে। এ ঘটনায় আসাদ নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন তাকে।

এদিকে ইউনিয়নটির পানাম প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৪-৫টি ককটেল বিস্ফোরিত হয়েছে। পঞ্চসার ইউপির চর মুক্তারপুর প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা বহিরাগতরা কেন্দ্র দখলের চেষ্টা চালায়। পরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। মুন্সীগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. হারুন অর রশিদ এসব তথ্য নিশ্চিত করে কেন্দ্রেগুলোতে ভোটগ্রহণ বলে জানান। মুন্সীগঞ্জে আজ শনিবার ১৫ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ চলছে। নির্বাচনকে ঘিরে নানা রকমের শঙ্কা থাকলেও ব্যাপক নিরাপত্তা বলয়ের কারণে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন পড়েছে।

বিজিবি, র‍্যাবসসহ বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের নিয়োগ করা হয়েছে। নিয়োগ করা হয়েছে রেকর্ড সংখ্যক ম্যাজিস্ট্রেট। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্পন্ন করতে প্রশাসন সব ব্যবস্থা নিয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল। চতুর্থ দফায় সদর উপজেলার তিনটি এবং টঙ্গীবাড়ি উপজেলার ১২ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ চলছে। এসব ইউনিয়নে মোট কেন্দ্র সংখ্যা ১৪৯টি। এর ১২৩ কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ। এর মধ্যে অতি ঝুঁকিপূর্ণ ৬১টি।

কালের কন্ঠ
================

মুন্সীগঞ্জে ইউপি নির্বাচনে বিভিন্ন কেন্দ্রে সহিংসতা

সকাল নয়টার পর থেকে মুন্সীগঞ্জের বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোট দখলকে কেন্দ্র করে নানা সহিংসতায় জড়িয়ে পড়ে সরকার দলীয় প্রার্থীর সমর্থকদের সাথে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকরা। এসকল ঘটনায় পুলিশ ১৫ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা করলেও সদর উপজেলার মিলকী পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কেন্দ্র থেকে ছিনতাই হয় পুলিশের ম্যাগজিন। আহত হয় পুলিশের এ এস আই রবিউলসহ ১০জন।

ভোট দখলে সহায়তা করার অভিযোগে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থীর এজেন্ট সাদ্দাম হোসেনকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালত। বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে এক থেকে দুই ঘন্টা বন্ধ থাকার পর পুনরায় চালু করা হয় ভোট গ্রহণ।

বিডিলাইভ

Leave a Reply