যুবলীগ সভাপতিসহ ৫জন মাদক ব্যবসায়ী আটক

সভাপতিকে ছাড়ানোর নেপথ্যে
মুন্সীগঞ্জ টঙ্গিবাড়ীর কুন্ডেরবাজার ব্রীজের পাশে কান্দাপাড়ায় যুবলীগ সভাপতিসহ ৫জনকে সোমবার (শবে বরাত) রাত ৮টায় দিকে গ্রেফতার করা হয়। দেলোয়ার খানের বাড়ীতে গাজা বিক্রির সময় হাতেনাতে গ্রেফতার করেন টঙ্গিবাড়ী থানা পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১১পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে পুলিশ এবং অন্যান্য ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়।

গ্রেতারকৃতরা হলেন-সিরাজদিখান উপজেলার মালখানগর ইউনিয়ন আওয়ামীযুবলীগ সভাপতি বাবুল কাজি(৫০),মালখানগর গ্রামের বিশ্বনাথ করের ছেলে ইউনিয়ন ২ নং ওয়ার্ড সাবেক সদস্যপ্রার্থী যুবলীগ সদস্য প্রদীপ কর (৩৬), কাজীরবাগ গ্রামের মনিরকাজি (৪৫), কুন্ডের বাজারের ওয়াজ উদ্দিন খানের ছেলে দেলোয়ার খান (৪৮) ও কান্দা পাড়া গ্রামের কালাই বেপারীরি ছেলে বাবু ওরফে কেতু বাবু(৩৫)।

সোমবার প্রদীপ কর ও মনির কাজীকে মাদক মামলায় আসামী করে কোট হাজতে পাঠানো হয়। বাকিদের ছেড়ে দেওয়া হয়। তাদেরকে ছাড়িয়ে নেওয়ার ব্যাপারে উপর মহলের নির্দেশে তদবির করেন ইয়াবা ব্যাবসায়ীদের গড ফাদার সিরাজদিখানের রথবাড়ি গ্রামের তছলিম শেখ ও কাজীরবাগ গ্রামের মাদক ব্যাবসায়ী সাবেক ইউপি সদস্য মাদক মামলার আসামী মালন কাজি। গভীর রাতে বড় অংকের টাকার বিনিময়ে তাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে স্থানীয়রা মনে করেন। এ নিয়ে কান্দাপাড়া এলাকায় বেশ আলোচনার ঝড় উঠেছে।

টঙ্গিবাড়ি থানার এস আই সাখাওয়াৎ জানান গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসি। প্রদীপ কর ও মনির কাজির নিকট ১১ টি ইয়াবা টেবলেট পাওয়ার তাদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দিয়ে আজ (সোমবার) তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকিরা ঘরের বাইরে ছিল এজন্য তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এর বেশি কিছু জানতে চাইলে মামলার আইও এস আই রাশেদুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করেন।

বহুবার ফোন করেও টঙ্গিবাড়ী খানার ও সি ও আইও এস আই রাশেদুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয় নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকে ক্রাইমভিশণকে জানায়, মালখানগর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি বাবুল কাজি সিরাজদিখান মাদক ব্যবসাকে নিয়ন্ত্রন করে। সরকার দলীয় নেতা হওয়ায় কেউ তার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে সাহস পায় না। বড় নেতাদের আশির্বাদপুষ্ট হওয়ায় দেদারছে চালিয়ে যাচ্ছে এ ব্যবসা ।সে এতই আশির্বাদপুষ্ট যে তার নামে অনেক পত্র-পত্রিকায় নিউজ আসার পরও তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

এ প্রসঙ্গে সিরাজদিখান উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক রাকিবুল হাসান জানান, আমি এ প্রসঙ্গে কিছুই জানিনা। আজ জানলাম সত্যতা পেলে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ক্রাইম ভিশন

Leave a Reply