ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে শিমুলিয়ায় ব্যাপক প্রস্তুতি

ঈদে শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটে যাত্রী সেবা নিশ্চিত করতে বিশেষ আইনশৃঙ্খলা কমিটির এক সভা বুধবার শিমুলিয়া ঘাটে বিআইডব্লিউটির কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক সাইফুল হাসান বাদল। উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) একেএম শওকত আলম মজুমদার, লৌহজং উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ ওসমান গণি তালুকদার, র‌্যাব-১১ ভাগ্যকুল ক্যাম কমান্ডার মামুদ আনোয়ার, অতিরিক্ত নৌ পুলিশ সুপার আলী হোসেন, সিনিয়র এএসপি (ট্রাফিক) মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক, এএসপি (শ্রীনগর সার্কেল) মোঃ সামসুজ্জামান বাবু, লৌহজং ইউএনও মোহাম্মদ খালেকুজ্জামন, শ্রীনগর ইউএও যতন মার্মা, জেলা তথ্য কর্মকর্তা মনির হোসেন, বিক্রমপুর প্রেসক্লাব সভাপতি মোঃ মাসুদ খান, লৌহজং থানা ওসি জাকির হোসেন, সিবোট ঘাট ইজারাদার ও মেদিনী ম-ল ইউপি চেয়ারম্যন আশরাফ হোসেন খান, কুমারভোগ ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান তালুকদার, মাওয়া বন্দর কর্মকর্তা মোঃ মহিউদ্দিন, ট্রাফিক পুলিশ ইন্সপেক্টর (টিআই) এইচ এম ছিদ্দিকুর রহমানর, মাওয়া নৌ পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ মোশারফ হোসেন, লঞ্চ মালিক সমিতির যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল রউফসহ ঘাট সংশ্লিষ্ট স্টেক হোল্ডাল নেতৃবৃন্দ।

সভার সিদ্ধান্ত মতে এবার ঈদে যাত্রীদের নির্বিঘেœ পারাপার করতে নানা ধরনের পিরাপত্তাসহ ডাক্তার, পুলিশ, র‌্যাব, কোস্টগার্ড, আনসার ও স্কাউটসহ কয়েক শতাধিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য কাজ করবে। কোন প্রকার যানজট ছাড়া যাতে যাত্রীরা পার হতে পারে সেজন্য প্রয়োজন বোধে ৭ দিন পূর্ব হতে ট্রাক পারাপার বন্ধ করে দেয়া হবে। জেলা প্রশাসক সাইফুল হাসান বাদল বলেছেন, যাত্রীদের কাছ থেকে কোন প্রকার অতিরিক্ত ভাড়া আদায় বরদাস্ত করা হবে না। পর্যাপ্ত সংখ্যক ম্যাজিস্ট্রেট ঘাটে পালাক্রমে ডিউটি করবে। অতিরিক্ত কোন যাত্রী লঞ্চে পার হতে পারবে না। অতিরিক্ত যাত্রী বহন করলে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জরিমানাসহ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। সিবোর্টেও অতিরিক্ত যাত্রী বহন ও ভাড়া আদায় করা যাবে না। এসব ব্যাপারে প্রশাসন কঠোর অবস্থানে থাকবে। দুর্নীতি করে যাত্রী হয়রানি করলে কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না।

জনকন্ঠ

Leave a Reply