ভারতে পাচারের সময় টঙ্গিবাড়ীর তরুণী উদ্ধার, আটক ১

ওমানে চাকরি দেওয়ার কথা বলে ভারতে পাচারের সময় এক তরুণীকে (১৯) উদ্ধার করেছে র‍্যাব-৬ । পাচার করার অভিযোগে আটক করেছে আয়শা আক্তার নামের এক নারীকে।

বুধবার বিকেলে র‍্যাব-৬ খুলনার লবণচোরার প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এই তথ্য জানানো হয়। উদ্ধার হওয়া তরুণীর বাড়ি মুন্সীগঞ্জ জেলার টঙ্গিবাড়ী উপজেলায়।

র‍্যাব-৬ খুলনার অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি খন্দকার রফিকুল ইসলাম জানান, নারীপাচারকারী আয়শা আক্তার পূর্ব পরিচয়ের সূত্র ধরে ওই তরুণীদের বাড়ি যায়। পিতৃহীন মেয়েটির মাকে বলে মেয়েকে ওমানে পাঠালে ৭০ হাজার টাকা মাসিক বেতন পাওয়া যাবে। নানা প্রলোভন দিয়ে তরুণীকে ওমানে পাঠানোর কথা বলে ঢাকায় নিয়ে যায়। ঢাকার হাজারীবাগের ঝাউচর এলাকায় একদিন রেখে কাগজপত্র তৈরি হয়ে গেছে বলে জানায়। দ্রুতই তাকে চলে যেতে হবে না হলে-তার ভিসা বাতিল হয়ে যাবে এই তথ্যও জানায় আয়শা। তরুণী প্রশ্ন করে তাঁর পাসপার্ট নাই, আর তা মা বিমানবন্দরে আসবে না? আয়শা বিমান বন্দরে যাওয়ার কথা বলে তরুণীকে যশোরের শার্শা থানার সীমান্তে নিয়ে আসে। সেখানে আরো কয়েকজন তরুণীর সঙ্গে রাখার পর সে জানতে পারে তাকে ভারতের মুম্বাইতে যৌন ব্যবসার জন্য বিক্রি করা হবে। পরে নাভারন নিয়ে যাওয়ার সময় তরুণীর কান্নাকাটি দেখে গতকাল ২৬ জুলাই রাত ১০টার দিকে র‍্যাবের টহল দল তাদের আটক করে।

র‍্যাব কর্মকর্তা জানান, আটক আয়শা আক্তার র‍্যাবের কাছে স্বীকার করেছে সে নানাভাবে ফুসলিয়ে তরুণীদের ভারতের যৌন ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করে দেয়। আয়শার নামে মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে মামলার প্রস্ততি চলছে।

এনটিভি

Leave a Reply