সিরাজদীখানে শিক্ষক কর্তৃক ছাত্রীর শ্লীতহানির অভিযোগ

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদীখানে শিক্ষক কর্তৃক ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ১২ বছরের এক ছাত্রীকে শ্লীতহানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে ছাত্রীর বাবা স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বরাবর গত রবিবার লিখিত অভিযোগ করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে গত ২১ ডিসেম্বর উপজেলার রাজদিয়া অভয় পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক মো. ফরিদ সরকারের বাসায়। ফরিদ সরকার কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর থানার মুরাদনগর গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে। গত দুই দিন পার হলেও অভিযোগ দিয়ে কোন বিচার না পেয়ে এখন হতাশায় ভোগছেন নির্যাতিত এই পরিবারটি।

ছাত্রীর পিতা জানান, শিক্ষক ফরিদ সরকার গত ১১ দিন আগে বার্ষিক পরিক্ষার খাতা দেখার কথা বলে তার বাসায় আমার মেয়েকে ডেকে নেয়। ঘরে প্রবেশ করলে দরজা আটকিয়ে শ্লীতহানি করে। বাসায় ফিরে ওর দাদিকে ঘটনাটি বলে। মান সম্মানের কথা চিন্তা করে প্রথমে কাউকে জানাতে চাই নাই। আমার মেয়ে অসুস্থ হয়ে পরলে আমি লিখিত ভাবে প্রধান শিক্ষক বিশ্বজিৎ ঘোষের মাধ্যমে বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি নাজমুল আলম খানকে জানাই। তারা ২ দিনেও কোন ব্যাবস্থা নেয় নাই।
প্রধান শিক্ষক বিশ্বজিৎ ঘোষ জানান, ফরিদ সরকার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, কমিটিকে জানিয়েছি। জরুরী মিটিং করে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

বিদ্যালয়ের সভাপতি নাজমুল আলম খান জানান, আমি ঘটনাটি শুনেছি, মেয়েটির বাবা লিখিত অভিযোগ করেছেন। আমি অসুস্থ, এ সপ্তাহের মধ্যেই জরুরী সভা করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষক ফরিদ সরকার জানান, আমার সাথে এমন কোন ঘটনা ঘটেনি।

ইমতিয়াজ বাবুলের ফেইছবুক থেকে

Leave a Reply