বেদে পরিবারের জীবন মান উন্নয়ের লক্ষ্যে পাইলট প্রকল্প : পরিকল্পনামন্ত্রী

পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল বলেছেন, লৌহজংয়ের তিনটি ইউনিয়নের আড়াই হাজার বেদে পরিবারের জীবন মান উন্নয়ের লক্ষ্যে এখানে নেয়া হবে পাইলট প্রকল্প। এখান থেকে শুরু করে সারা দেশে এ ধরনের প্রকল্প নেয়া হবে।

তিনি শুক্রবার বিকেলে মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের গোয়ালী মান্দ্রী বেদে সম্প্রদায়ের জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের এমপি ও সাবেক হুইপ সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি। লৌহজং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব ফকির আব্দুল হামিদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল রশিদ সিকদারের সঞ্চালনায় এ সময় অন্যন্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্তি ডিআইজি (সংস্থাপন, ঢাকা হেড কোয়ার্টার) মো. হাবিবুর রহমান প্রমুখ।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন আর আগের অবস্থানে নেই। এখন থেকে ১৫ বছরের মধ্যে বাংলাদেশ সকল বিবেচনায় প্রথম হবে। সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়াকে হারিয়ে আমরা উন্নত দেশের প্রথম সারিতে থাকবো। আর তাই থাকতে হলে দেশের ১৬ কোটি ১০ লাখ মানুষের একজনের জীবনযাত্রার মান খারাপ রাখা যাবেনা।
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এখানে এসেছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, আগামী ৩-৪ মাসের মধ্যে সমাজ কল্যাণ মন্ত্রীকে নিয়ে এখানে প্রকল্প তৈরী করা হবে। এর পর প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে এ প্রকল্পের উদ্বোধন করা হবে।

মোস্তফা কামাল বলেন, শেখ হাসিনা অনেক বাঁধা অতিক্রম করে পদ্মা সেতু করছে। এ সেতু হয়ে গেলে এই অঞ্চলের মানুষও আলোকিত হবে।

মোস্তফা কামাল বলেন, বেদেদের জীবন মান উন্নয়নে, সকলের জন্য আবাসন ব্যবস্থা করা হবে। শুধু আবাসনই নয় তাদরে থাকার ঘর, স্কুল কলেজ এমনকি সেই স্কুল কলেজ থেকে যারা শিক্ষিত হয়ে বের হবেন, তাদের চাকুরীর ব্যবস্থাও করা হবে। দেশের একশ’টি শিল্পাঞ্চালে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বেদেদের চাকুরী দেয়া হবে।

বাসস

Leave a Reply