জাপান প্রবাসী রাজেশ বড়ুয়া বাবু আর নেই

জাপান প্রবাসী রাজেশ বড়–য়া বাবু আর নেই। ব্রেন স্ট্রোক করে ১৮ দিন অজ্ঞান অবস্থায় হাসপাতালে থেকে অবশেষে মৃত্যুকেই আলিঙ্গন করতে হয়েছে।

১২ ফেব্রুয়ারি তিনি অসুস্থ হয়ে অবচেতন হয়ে পড়লে জরুরি ভিত্তিতে তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়। বিশেষ পর্যবেক্ষণে অবচেতন অবস্থায় ১ মার্চ জাপান সময় রাত ৯টা ১০ মিনিটে টোকিওর মেগুরো কোসেই চুউও হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৪০ বছর। তিনি স্ত্রী (জাপানিজ), এক পুত্র সন্তান (চার মাস), পাঁচ ভাই, চার বোনসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও শুভানুধ্যায়ী রেখে যান।

রাজেশ বড়–য়ার শেষকৃত্য টোকিওর গোতানদা শ্মশানে অনুষ্ঠিত হয় ৫ ফেব্রুয়ারি। বাংলাদেশ থেকে তার ভাইবোনদের অনুমতি নিয়েই তার দেহ দাহ করা হয়।
চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার মরহুম যাত্রামোহন বড়–য়ার ষষ্ঠ ছেলে রাজেশ বড়–য়া বাবু। তার গ্রামের নাম হাইদচকিয়া।

তার এক বড় ভাই সজল বড়–য়া দীর্ঘদিন জাপান প্রবাসী ছিলেন। আরেক বড় ভাই বিপুল বড়–য়া একজন সাংবাদিক এবং গল্পকার।

রাজেশ বড়–য়া বাবুর অকাল মৃত্যুর সংবাদে জাপান প্রবাসীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে। পারিবারিক বিধিনিষেধজনিত কারণে ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও অনেকেই শেষবারের মতো দেখার সুযোগ পাননি।

তবে প্রবাসীরা তার আত্মার সদগতি কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

rahmanmoni@gmail.com

সাপ্তাহিক

Leave a Reply