অবশেষে ভূতাপেক্ষ সচিব হলেন মুন্সীগঞ্জের আকরাম আলী মৃধা

মুন্সীগঞ্জের আকরাম আলী মৃধা অবশেষে ভূতাপেক্ষ সচিব হয়েছেন। প্রশাসনের অবসরপ্রাপ্ত ছয় কর্মকর্তাকে সচিব পদে (ভূতাপেক্ষ) পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। আদালতের নির্দেশে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এই পদোন্নতি দিয়ে আদেশও জারি করা হয়েছে। ২০০৭ সালে অবসরে যাওয়া এসব যুগ্ম সচিব ২০০১ সাল থেকে অতিরিক্ত ও ২০০৩ সালে সচিব হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করলেও তৎকালীন সরকার তাদেরকে পদোন্নতি না দিয়ে তাদের কনিষ্ঠ সব কর্মকর্তাদের পদোন্নতি প্রদান করে।

এসব কর্মকর্তা ১৯৭৩ ব্যাচের কর্মকর্তা। ছয় কর্মকর্তাদের একজন আকরাম আলী মৃধা ১৯৪৮ সালের ৩ জানুয়ারী মুন্সীগঞ্জ জেলাধীন টঙ্গীবাড়ি উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি পেশাগত জীবনে দেশের বিভিন্ন স্থানে দায়িত্বে ছিলেন। তিনি ১৯৬৪ সালে পাইকপাড়া ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয় হতে মেট্রিক পাস করেন।তিনি সরকারী হরগঙ্গা ও জগন্নাত বিশ্ববিদ্যালয় হতে পড়াশোনা শেষ করেন। তিনি গবিন্দ্রগঞ্জ উপজেলা সহকারী ভূমি কমিশনার, মায়মনসিংহ জেলার ফুলবাঁড়িয়া উপজেলার প্রথম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ছিলেন। ঠাকুরগাঁও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক),বি.বাড়িয়াঅতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( রাজস্ব), নোয়াখালী অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এবং ফরিদপুর জেলা পরিষদের সচিবের দায়িত্ব পালন করেন।

যশোর জোনের জেডএসও এর দায়িত্বে ছিলেন। তিনি ট্যারিফ কমিশন এর সদস্য এবং সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ে দায়িত্ব পালন করেন।আকরাম আলী মৃধা চট্টগ্রাম ও ঢাকা অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার পদে আসীন ছিলেন। খাদ্য মন্ত্রণালয় এবং মন্ত্রী পরিষদের উপ সচিব হিসেবে এবং পরবর্তীতে যুগ্ম সচিব পদেও কর্মরত ছিলেন। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের আদেশ অনুযায়ী এসব কর্মকর্তা আদেশ জারির পূর্বের কোনো আর্থিক সুবিধাদি প্রাপ্ত হবেন না। তবে সচিব পদে আদেশ জারির পর অবসরজনিত সুযোগ সুবিধা পাবেন। যেসব কর্মকর্তাকে ভূতাপেক্ষ সচিব করা হয়েছে তারা হলেন- আকরাম আলী মৃধা, আব্দুল মালেক মিয়া, আব্দুল মোবারক, তোফাজ্জল হোসেন, খন্দকার আবু মো. আব্দুল্লাহ, আবিদুর রহমান।

One Response

Write a Comment»
  1. WE ARE PROUD .

Leave a Reply