সিরাজদিখানে ধর্ষণের পর ফেসবুকে ভিডিও ছেড়ে দিল প্রেমিক

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে বিয়ের কথা বলে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৬) ধর্ষণ করে এর ভিডিওচিত্র ফেসবুকে আপলোড করেছেন মো. সুজন শেখ (২৪) নামে এক প্রেমিক।

এ ঘটনায় ছাত্রীর মা বাদী হয়ে সিরাজদিখান থানায় শুক্রবার সন্ধ্যায় একটি মামলা করেন। মামলা দায়েরের পর পুলিশ ধর্ষক সুজন শেখকে গ্রেফতার করে শনিবার মুন্সীগঞ্জ আদালতে পাঠিয়েছে। গ্রেফতার সুজন টঙ্গীবাড়ি উপজেলার বেতকা ইউনিয়নের আমতলী গ্রামের শামসুল হকের (মতি) ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ৫ মাস আগে মেয়েটির সঙ্গে মোবাইল ফোনে তার সম্পর্ক হয়। এরপর তারা দুইজনে বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়ায় এবং কৌশলে সুজন তাকে ধর্ষণ করে। পরে মেয়েটি জানতে পারে ছেলেটি বিবাহিত। এরপর মেয়েটি যোগাযোগ না করতে চাইলে ধর্ষণের ভিডিও ফেসবুকে দেয়ার হুমকি দেয় মেয়েটিকে। তার পরও মেয়েটি তার ডাকে সাড়া না দেয়ায় একটি ফেক আইডি খুলে ছবি ও ভিডিও আপ করে দেয় ধর্ষক।

উপায় না পেয়ে মেয়েটি তার মাকে বিষয়টি জানায়। এ বিষয়ে তার মা থানায় অভিযোগ করলে আসামিকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সিরাজদিখান থানা পুলিশের ওসি মো. আবুল কালাম বলেন, শুক্রবার রাতেই আমরা আসামিকে গ্রেফতার করি এবং শনিবার আদলতে পাঠিয়েছি।

পূর্ব পশ্চিম

Leave a Reply