পদ্মা সেতুর সুপার স্ট্রাকচারে পেইন্টিংয়ের কাজ শুরু

মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের উপজেলার কুমারভোগ এলাকায় কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে সাত নম্বর সুপার স্ট্রাকচারে পেইন্টিংয়ের কাজ শুরু হয়েছে। সুপার স্ট্রাকচার বা স্প্যানটির ধূসর রং করতে ব্যস্ত সময় পার করছেন সংশ্লিষ্টরা। ইতোমধ্যে পদ্মা সেতুর সার্বিক অগ্রগতি ৪৬.৫ শতাংশ হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) শ্রীনগর উপজেলার দোগাছিতে প্রকল্প এলাকার সার্ভিস এরিয়া-২ তে দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞ প্যানেলের তিন দিনব্যাপী সভা শুরু হয়। শুক্রবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দিনব্যাপী বিশেষজ্ঞ প্যানেল পদ্মা সেতুর খুঁটিনাটি পর্যবেক্ষণে সরেজমিনে পরিদর্শন করছেন।

পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞরা সার্বিক প্রকল্প ঘুরে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেবেন। তারা সেতু প্রকল্পের যাবতীয় বিষয়গুলো পর্যবেক্ষণ করবেন। মতবিনিময়ের মাধ্যমে নানা বিষয়ে আলোচনা করা হবে বলে জানান তিনি।

নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আব্দুল কাদের বাংলানিউজকে বলেন, পদ্মা সেতুর সুপার স্ট্রাকচারে চূড়ান্ত পর্যায়ে রং হচ্ছে। এ বছরের শেষের দিকে ৩৭ ও ৩৮ তম পিলারের ওপর স্থাপন হবে সুপার স্ট্রাকচার বা স্প্যান। সুপার স্ট্রাকচারের রং হচ্ছে ধূসর।

পদ্মা সেতু প্রকল্প সূত্র জানায়, চলতি মাসের মধ্যেই দৃশ্যমান করতে প্রকল্পের প্রতিটি ডিপার্টমেন্টেই চলছে সংশ্লিষ্টদের ব্যস্ততা। মুন্সীগঞ্জের মাওয়া ও শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে এই ব্যস্ততা পদ্মা সেতুর সার্বিক অগ্রগতি বাড়াতে অগ্রসর ভূমিকা রাখবে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর

Leave a Reply