পদ্মার বুকে এখন বিশ্বের সর্বোচ্চ শক্তির হ্যামার

পদ্মা সেতু নির্মাণকাজে গতি আনতে ৩ হাজার ৫০০ কিলোজুল শক্তির একটি হ্যামার আজ সকালে সেতু এলাকায় এসে পৌঁছেছে। জার্মানির (এমইএনসিকে) তৈরি এ হ্যামারটি এখন পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে বেশি শক্তির অধিকারী হ্যামার।

মোট ২৭২টি পাইল নির্মিত হবে পদ্মাসেতুতে। এ পর্যন্ত নদীতে মূল সেতুর ২৪০টি পাইলের মধ্যে ৯৩টি পাইল ড্রাইভ হয়েছে। নদীর দুই পাড়ে সেতুতে ওঠার ট্রানজিশন পিলারে ৩২টি পাইলের মধ্যে ১৬টির কাজ শেষ হয়েছে।

সক্রিয় ২ হাজার ৪০০ ও ১ হাজার ৯০০ কিলোজুলের দুটি হ্যামার অনবরত কাজ করে যাচ্ছে। নতুন আনা হ্যামারে পদ্মাসেতুর মাওয়া অংশ ও মাঝনদীতে পাইল ড্রাইভে গতি আসবে বলে আশা করছেন সেতু নির্মানকাজে সংশ্লিষ্টরা।

মূলত পাইলিংয়ের কাজে হ্যামারের ক্ষমতার ১০ শতাংশ লোড প্রয়োগ করে প্রাথমিকভাবে হ্যামারিং শুরু করা হয়। পাইল মাটির ভেতরে যত বেশি প্রবেশ করে তত বেশি লোডের প্রয়োজন হয়। মাটির ভিতরে আরো প্রবেশের জন্য প্রয়োজনমতো হ্যামারের লোড বাড়াতে হয়। এভাবে হ্যামারের লোড পর্যায়ক্রমে বাড়ানো হয়। এভাবে শতভাগ পর্যন্ত লোড বাড়িয়ে পাইল ড্রাইভ করা হয়ে থাকে। আরো বেশি লোড প্রয়োগের মাধ্যমে পাইলিংয়ের কাজে নতুন এ হ্যামারটি ব্যবহার করা হবে।

বণিক বার্তা

Leave a Reply