হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলায় আরও একজনের সাক্ষ্য গ্রহণ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলায় আরও একজনের সাক্ষ্য গ্রহণের পর আগামী ২৩ জানুয়ারী পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ঠিক করেছে আদালত। রবিবার পুলিশ পরিদর্শক মাহবুবুর রহমান সাক্ষ্য দেন।

ঢাকার চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ জাহিদুল কবির এ সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করেন।

এনিয়ে হত্যা মামলায় ৪২ জনের এবং বিস্ফোরক দ্রব্য আইনের মামলায় ১০ জনের সাক্ষ্য শেষ হলো।

সাক্ষ্য গ্রহণকালে আদালতে হাজির করা হয় জেএমবির সূরা সদস্য আনোয়ার আলম ওরফে ভাগ্নে শহিদ ও মিজানুর রহমান ওরফে মিনহাজ ওরফে শফিককে।

মামলার অপর আসামি জামায়াতুল মুজাহিদুন বাংলাদেশের (জেএমবি) শুরা সদস্য সালাহউদ্দিন ওরফে সালেহীন, রাকিবুল হাসান ওরফে হাফিজ মাহামুদ ও নুর মোহাম্মদ ওরফে সাবু পলাতক।

২০১৪ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি প্রিজনভ্যান থেকে যে তিন আসামি ছিনিয়ে নেয় জঙ্গিরা। ওই তিন জনের মধ্যে দুইজন সালাহউদ্দিন ওরফে সালেহীন এবং রাকিবুল হাসান ওরফে হাফিজ মাহামুদ। এদের মধ্যে রাকিব ওইদিন রাতে ধরা পরে এবং পরে ক্রসফায়ারে নিহত হয়।

২০০৪ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি একুশে বইমেলা থেকে বাসায় ফেরার পথে বাংলা একাডেমির উল্টো দিকে ফুটপাতে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়ে মারাত্মক আহত হন হুমায়ুন আজাদ। এ হামলার পর তিনি ২২ দিন সিএমএইচ হাসপাতালে এবং ৪৮ দিন ব্যাংককে চিকিৎসাধীন ছিলেন। ২০০৪ সালের ১২ আগস্ট (জার্মান সময়) ড. হুমায়ূন আজাদ জার্মানির মিউনিখে মারা যান।

২০১২ সালের ৩০ এপ্রিল সিআইডি’র পরিদর্শক লুৎফর রহমান ওই পাঁচ আসামিকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন।

ঢাকাটাইমস

Leave a Reply