শ্রীনগরে যৌন হয়রানির প্রতিবাদ করতে গিয়ে বখাটে ছাত্রের হাতে শিক্ষক লাঞ্চিত

আরিফ হোসেন: শ্রীনগরে স্কুলের সামনে এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির সময় এর প্রতিবাদ করতে গিয়ে বখাটে ছাত্রের হাতে লাঞ্চিত হয়ছেন এক শিক্ষক । মঙ্গলবার সকালে শ্রীনগর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজে এ ঘটনা ঘটে। পরে ওই শিক্ষককে দেখে নেওয়ার হুমকী দিয়ে বখাটে ছাত্র ও তার বাবা স্কুলের সামনে অবস্থান নিলে অন্য ছাত্ররা তাদের ধাওয়া দেয়। এক শিক্ষকের লাঞ্চিত করার ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটির অন্যান্য শিক্ষকদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিদ্যালয়ের বার্ষিক পরীক্ষা শুরু হওয়ার ৫ মিনিট আগে নবম শ্রেণীর ছাত্র আল সাকিব (১৫) শার্টের বুতাম খুলে ও নানা রকম অঙ্গ ভঙ্গীর মাধ্যমে এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করছিল। বিষয়টি প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষক প্রতিনিধি আলতাফ হোসেন উজ্জলের চোখে পরে। তিনি সাকিবকে শার্টের বুতাম লাগিয়ে পরীক্ষার হলে গিয়ে বসতে বলেন। কিন্তু সাকিব শিক্ষক আলতাফ হোসেনকে তোয়াক্কা না করে দাঁড়িয়ে থাকে। শিক্ষক আলতাফ হোসেন পুনরায় ধমক দিয়ে সাকিবকে পরীক্ষার হলে যেতে বললে সে আলতাফ হোসেনকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। আলতাফ হোসেন উঠে সাকিবকে থাপ্পর দিয়ে স্কুলের অফিস কক্ষে নিয়ে যায়।

পরে সাকিবের বাবা উপজেলার শ্যামসিদ্ধি গ্রামের গোলাম মোস্তফা ছেলের পক্ষ নিয়ে বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়ে শিক্ষক আলতাফ হোসেনকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয় এবং স্কুলের বাইরে অবস্থান নেয়। ঘটনাটি জানাজানি হলে স্কুলের অন্যান্য ছাত্ররা তাদের ধাওয়া দেয়। অপর একটি সূত্র জানায়, সাকিবের বিরুদ্ধে এর আগেও যৌন হয়রানি সহ একাধিক অভিযোগে রয়েছে । তাকে বার বার সতর্ক করা হলেও দিন দিন সে বেপরোয়া হয়ে উঠে। গত পরশুদিন সে মোবাইল ফোন নিয়ে পরীক্ষার হলে প্রবেশ করলে তার ফোনটি আটক করা হয়।

এব্যাপারে প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ আবুল হোসেন বলেন, ম্যানেজিং কমিটির সাথে বসে এবিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। প্রত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হলে প্রতিষ্ঠানের বদনাম হবে জানিয়ে তিনি সংবাদ প্রকাশ না করার জন্য অনুরোধ করেন।

Leave a Reply