উত্তর মেদিনীমণ্ডল গ্রামে শুভসংঘের কম্বল বিতরণ

‘বাবারে, এইবারের শীতে খুউব কষ্ট করলাম। এক্কেবারে কাবু হয়া গেছি। কেউ খবর নিল না। আজগা একটা কম্বল পাইলাম। মনে হয়, এখন শীত আমারে আর কাবু করতে পারব না। এই কম্বলডা জড়াইয়া শীত পার কইরা দিমু। হোনলাম পত্রিকা অলারা এই কম্বল দিল। আল্লায় হেগো ভালো করুক।’

কালের কণ্ঠ শুভসংঘের উদ্যোগে গতকাল মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার উত্তর মেদিনীমণ্ডল গ্রামে কম্বল বিতরণ করা হয়।

গতকাল শুক্রবার কালের কণ্ঠ’র পাঠক ফোরাম শুভসংঘের আয়োজনে কম্বল পেয়ে এমন কথাই বলছিলেন মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার উত্তর মেদিনীমণ্ডল গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের স্ত্রী সালেহা খাতুন (৭৫)। কম্বল পাওয়ার পর একই ধরনের অভিব্যক্তি প্রকাশ করে অনেকেই।

উপজেলার মেদিনীমণ্ডল আনোয়ার চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে উপস্থিত থেকে দুস্থদের হাতে কম্বল তুলে দেন মুন্সীগঞ্জ-২ (লৌহজং-টঙ্গিবাড়ী) আসনের এমপি ও সাবেক হুইপ অধ্যাপিকা সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, কালের কণ্ঠ সম্পাদক কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন ও লৌহজং উপজেলা চেয়ারম্যান মো. ওসমান গণি তালুকদার।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শুভসংঘের জাকারিয়া জামান, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. আশরাফ হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা আলী আকবর, স্থানীয় সমাজসেবক মোশারফ হোসেন দুলাল, মাজাহারুল ইসলাম ডালু, সাইদুল হক খোকন, আবু ফয়সাল নিপু ফকির, আনোয়ার চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নারায়ণ চন্দ্র মণ্ডল প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ সব সময় আর্তমানবতার সেবায় কাজ করছে। বিষয়টি আজ আবারও প্রমাণ হলো।

মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের এমপি অধ্যাপিকা সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি বলেন, সমাজে অনেক বিত্তবান আছে, তারা সব সময় এভাবে পাশে দাঁড়ালে এ দেশের গরিব-দুঃখীরা আর কষ্টে থাকবে না।

কালের কণ্ঠ

Leave a Reply