মুন্সিগঞ্জে মেধাবী ও হতদরিদ্র শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাসামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠিত।

সোহেল টিটুঃ মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার শিলই ইউনিয়নের পূর্বরাখী একতা ক্লাব ও যুব সমাজের উদ্যোগে মেধাবী ও হতদরিদ্র শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে।

গত শনিবার সকাল ১০টায় পূর্বরাখী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এক বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে শিলই ইউনিয়নের বিভিন্ন বিদ্যালয়ের মেধাবী ও হতদরিদ্র শিক্ষার্থীদের’কে এসকল শিক্ষা সামগ্রী প্রতি বছর পূর্বরাখী একতা ক্লাবের সদস্যরা প্রদান করে থাকেন। এসময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিলই ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসেম লিটন। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন পূর্বরাখী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও ইউপি সদস্য দিল মোহাম্মদ বেপারী,সহ-সভাপতি সেরু বেপারী।

আরো উপস্থিত ছিলেন, শিলই হাজী মনিরউদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলমগীর হোসেন। শিলই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মফিজদ্দিন। আকাল মেঘ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ সোহেল রানা। আকাল মেঘ দাখিল মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক মোঃ মিল্লাত হোসেন। মূলচর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুল কাদির। পূর্বরাখী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ দিদার হোসেন, সহকারী শিক্ষক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান,শিক্ষিকা সুরাইয়া আফরোজ, শাহিনা আক্তার,আরিফ হোসেন। ইউপি সদস্য ফিরোজ আলম বেপারী, ওলিউল্লাহ মোল্লা ও রিয়াজুল ইসলাম হাকিম মাদবর। অত্র এলাকার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ মজনু খান,হুমায়ন বেপারী,মোঃ বিল্লাল হোসেন মিজি,সাহাদাৎ হোসেন বেপারী,হাসেম বেপারী প্রমুখ।

এসময় প্রধান অতিথি ও শিলই ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসেম লিটন তিনি তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড,শিক্ষা ছাড়া কোন জাতি উন্নতি করতে পারে না। আর এটাই হলো চিরন্তন সত্যবানী। তাই শিক্ষার কোন বিকল্প নেই।পূর্বরাখী একতা ক্লাবের যে সকল যুবকরা এ ধরনের একটি মহতী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে,আমি তাদের সকলেকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানাই।যারা আজকে এই মহতী কাজে শিক্ষা সামগ্রী দিয়ে মেধাবী ও হতদরিদ্র শিক্ষার্থীদের’কে সহযোগিতা করেছে তাদের নাম না বললে আজকের এই অনুষ্ঠান অপূর্ণ রয়ে যাবে, তাই আমি সেই সকল মহতী ব্যক্তিদের নাম বলছি -মোঃ সাদ্দাম হোসেন রিপন,ইমরান হোসেন বেপারী,সাগর বেপারী, আলআমিন বেপারী,আবু হানিফ ঢালি,আছলাম খাঁন,জাকির খাঁন,শাওন বেপারী,শাহ আলম দেওয়ান,জামান মোল্লা, ছানাউল্লাহ চৌকিদারসহ প্রত্যকে আবারো ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানিয়ে আমি আমার সংক্ষিপ্ত বক্তব্য শেষ করছি।শুভ হোক পূর্বরাখী একতা ক্লাবের,শুভ হোক যুব সমাজের,শুভ হোক সকল কমলমতি শিক্ষার্থীদের। আল্লাহ হাফেজ।

Leave a Reply