বঙ্গবন্ধুর জম্মদিনে চেতনায় একাত্তরের আলোচনা ও দোয়া অনুষ্টান

কামাল আহমেদ : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জম্মদিন উপলক্ষে চেতনায় একাত্তর নিজ কার্যালয়ে জম্মদিনের কেক কাটা,আলোচনা ও দোয়া অনুষ্টানের আযোজন করে। চেতনায় একাত্তর সম্পাদক ও মুন্সিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা কামালউদ্দিন আহম্মেদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্টানে অংশ নেন জেলা আওয়ামী লীগ তথ্য ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক সালাহউদ্দিন আহাম্মেদ,খোলাসা পত্রিকার সম্পাদক মাহামুদুল হাসান,৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক আঃ বাছিত লাভলু, পৌর শ্রমিক লীগ প্রস্তাবিত সভাপতি মোঃ মোজাম্মেল হক,সাধারন সম্পাদক আবুল বাসার, সদর উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা জালালউদ্দিন জনি,মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের কার্যকরি সদস্য সৌরব আহাম্মেদ জনি, পৌর যুবলীগ নেতা রবীন, ভাস্কর গোষ্ঠীর সাধারন সম্পাদক নূর হাসান মোল্লা, পৌর ছাত্রলীগ নেতা সাওন আহাম্মেদ জুম্মাান, স্থানীয় ছাত্রলীগ,যুবলীগ ও শ্রমিক লীগ নেতৃবৃন্দ ও সকল স্তরের লোকজন।

জম্মদিন অনুষ্টানে শিশুদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর জম্মদিনের কেক কাটা হয়, বঙ্গবন্ধুর স্থৃতিচারন করে বক্তব্য রাখেন সালাউদ্দিন আহাম্মেদ,আবুল বাসার, আঃ বাছিত লাভলু, সৌরব আহাম্মেদ জনি, নূর হাসান মোল্লা প্রমুখ ব্যাক্তিবর্গ।

সভাপতির বক্তব্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা কামালউদ্দিন আহাম্মেদ বলেন জাতির জনকের সপ্ন এই দেশের মানুষের মুখে হাঁসি ফুটানো সেই লক্ষ্যেই বঙ্গবন্ধু নিদের্শে আমরা মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহন করি-বঙ্গবন্ধুর নির্দেশিত পথে বিজয় অর্জন করি, বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবাওে হত্যা কওে জিয়া রাষট্র ক্ষমতা দখল করে নেয়, পাকিস্তানী দোসর রাজাকার,স্বাধীনতা বিরোধীদেও রাষ্টীয় ক্ষমতায় বসায়, মুক্তিযুদ্ধেও চেতনাকে মুছে ফেলতে নানা ধরনের অপতৎপরতা চালায়, বঙ্গবন্ধু কন্যা জনগনের ভোটে নির্বাচিত হয়ে দেশকে উন্নয়ন ও অগ্রগতির পথে এগিয়ে নেয়,এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হলে আগামী নির্বাচনেও জননেত্রী শেখ হাসিনার মনোনিত প্রার্থীকে জয়ী করতে হবে।

আলোচনা শেষে বঙ্গবন্ধু ও ১৫ই আগষ্ট নিহত পরিবারের সদস্যেদের আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং বঙ্গবন্ধুর জীবিত দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানার দীর্ঘজীবন কামনা করে দোয়া করা হয়,দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন নুরনুর জামে মসজিদেও পেশ ঈমাম সাহেব।

Leave a Reply