শ্রীনগরে ভূমিহীনদের বিরুদ্ধে গুম মামলার ভিকটিমের অস্তিত্ব নেই!

পদ্মার চরে ভূমিহীনদের ফলানো প্রায় দেড়শ’ বিঘা জমির সোনালি ধানসহ বিভিন্ন ফসল কেটে নেয়ার জন্য ভূমিদস্যুদের দেয়া গুম মামলার ভিকটিমের অস্তিত্ব খুঁছে পাচ্ছে না পুলিশ। ৯ এপ্রিল ভূমিদস্যুদের পক্ষে ভাগ্যকূল-মান্দ্রা গ্রামের জাহাঙ্গীর মোড়ল তার ভাতিজা শরীয়তপুরের জাজিরা থানার কাজীকান্দি গ্রামের শহিদুল ইসলামকে (১৬) গুম করা হয়েছে মর্মে মুন্সীগঞ্জ আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ভূমিহীন সমিতির ১৭ জনের বিরুদ্ধে পিটিশন দায়ের করে। আদালতের নির্দেশে শ্রীনগর থানা পুলিশ বিষয়টি মামলা হিসেবে রেকর্ড করে দু’জনকে গ্রেফতার করে। পরে শ্রীনগর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজী মাকসুদা লিমা মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা শ্রীনগর থানার এসআই ফিরোজ মোল্লাকে জেলার টঙ্গীবাড়ি থানার দিঘীরপাড় ক্যাম্পে বদলি করা হয়েছে। পরে মামলাটি গুরত্বসহকারে তদন্ত করতে গিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য পায় পুলিশ।

যুগান্তরের অনুসন্ধানে জানা গেছে, মামলায় উল্লিখিত গুমের ভিকটিম শরীয়তপুরের জাজিরা থানার কাজী কান্দি গ্রামের শহিদুল ইসলাম (১৬) নামে কোনো মানুষের অস্তিত্ব নেই। যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শ্রীনগর থানার ওসি তদন্ত ফরিদ উদ্দিন। তিনি জানান, জাজিরা থানা পুলিশ মোবাইল ফোনে জানিয়েছে, কাজিকান্দি গ্রামে শহিদুল ইসলাম ও তার বাবা মজিদ কাজীর কোনো অস্তিত্ব নেই। জাজিরা থানা সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার এ মর্মে একটি প্রতিবেদন শ্রীনগর থানার বর্তমান তদন্ত কর্মকর্তার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। জাজিরা থানার বিকেনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান সরদার জানান, দুই ভাগে বিভক্ত কাজিকান্দি গ্রামের কোথাও মজিদ কাজীর ছেলে শহিদুল নামে কেউ নেই। এ ব্যাপারে জাজিরা থানার চাহিদার বিপরীতে প্রত্যয়নপত্র দেয়া হয়েছে।

মামলার ৩ নম্বর সাক্ষী আবদুল খালেক স্বীকার করেন, ভূমিহীনদের কাছ থেকে চাঁদা না পেয়ে ক্ষোভে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। জাজিরার ওই ঠিকানায় মামলার ভিকটিম শহিদুল নামের কেউ নেই বলেও তিনি জানান। ৪ নম্বর সাক্ষী মো. আলী ফরাজী বলেন, আমাকে না জানিয়ে এ মিথ্যা মামলায় সাক্ষী করা হয়েছে। ভাগ্যকূল বাজারের একাধিক ব্যবসায়ী জানান, এলাকার প্রভাবশালী দুই ভূমি দস্যুর ছত্রচ্ছায়ায় মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। তাদের মধ্যে একজন ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের চিহ্নিত রাজাকার।

যুগান্তর

Leave a Reply