শ্রীনগরের বালাশুর-ভাগ্যকুল সড়ক বেহাল

শ্রীনগর উপজেলার বালাশুর চৌরাস্তা থেকে ভাগ্যকুল পর্যন্ত সড়কটি মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। একটু বৃষ্টি হলেই সড়কটি কাদামাটিতে একাকার হয়ে ওঠে। বৃষ্টির পানি জমে পিচ্ছিল হয়ে ওঠে সড়কটি। এতে মাঝে মধ্যে দুর্ঘটনা ঘটছে। যে কোন সময় সড়কটিতে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছে স্থানীয়রা।

এলাকাবাসী জানান, এ সড়ক পথেই রয়েছে ভাগ্যকুল র‌্যাব-১১ কার্যালয়, ভাগ্যকুল হরেন্দ্রলাল উচ্চ বিদ্যালয়, ভাগ্যকুল বাজার, আবহাওয়া অফিসসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা অথচ বৃষ্টি হলেই বালাশুর চৌরাস্তা থেকে ভাগ্যকুল পর্যন্ত সড়কে যাতায়াত করা দুষ্কর হয়ে পড়ে। মরণ ফাঁদে পরিণত হয় সড়কটি। তবু স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা সড়কটি চোখে দেখেও দেখেন না যেন। বর্ষা মৌসুম আসতে না আসতেই প্রচুর পরিমাণে বৃষ্টি হচ্ছে। আর এতে সড়কটি যাতায়াতের জন্য অনুপযোগী হয়ে উঠেছে। এ সড়কে পথচারীদের হেঁটে পারাপার হওয়া কষ্ট সাধ্য বিষয়ে হয়ে দাঁড়াচ্ছে। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের স্কুলে যাওয়া-আসার ক্ষেত্রে এ সড়কটি এখন ভোগান্তিতে পরিণত হয়েছে। এ দিকে, এই সড়কে প্রায়ই আরোহীদের নিয়ে রিক্সা উল্টে গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হতে হচ্ছে। এতে আহত হচ্ছেন অনেক রিক্সা আরোহী। আবার প্রায়শ মালবোঝাই ভ্যানগাড়ি উল্টে পণ্যের ক্ষতি সাধিত হচ্ছে। পথচারীরা প্রায়ই পা পিছলে পড়ছে এই সড়কে। এতে অনেকেই কমবেশি আহত হচ্ছেন। কাজেই স্থানীয়দের দাবি হচ্ছে- বালাশুর চৌরাস্তা থেকে ভাগ্যকুল পর্যন্ত সড়কটি মেরামত করে যাতায়াতের উপযোগী করা হোক। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সড়কটি মেরামতে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া উচিত বলে মনে করেন স্থানীয়রা।

শ্রীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুল ইসলাম জানান, রাস্তাটি যথাযথ সংস্কার এবং পথচারীদের অসুবিধা বিবেচনায় জরুরী ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্টদের তাগিদ দেয়া হয়েছে।

জনকন্ঠ

Leave a Reply