কুয়েত প্রবাসীর স্ত্রী স্বর্ণ-টাকা নিয়ে পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে উধাও

মুন্সিগঞ্জে গজারিয়ার প্রবাসী স্বামীর স্বর্ণ ও নগদ টাকা নিয়ে প্রেমিকের হাত ধরে খাদিজা আক্তার সোহাগী নামে এক তরুণী পালিয়ে গেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

প্রবাসীর স্ত্রী খাদিজা আক্তার সোহাগী উপজেলার ইমামপুর ইউনিয়নে আন্দার মানিক গ্রামের কাদির খানের মেয়ে,আর প্রেমিক উপজেলার ভবেরচর ইউনিয়নে ভবেরচর গ্রামের সাদেক খানের ছেলে রুবেল খান।

প্রবাসীর স্ত্রী প্রেমিকের হাত ধরে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ভাইরাল হয়।

প্রবাসী সুমন এবং তার পরিবার সূত্রে জানাযায়,গত ৬ বছর পূর্বে পারিবারিক ভাবে একই উপজেলার ইমামপুর ইউনিয়নে আন্দার মানিক গ্রামের কাদির খানের মেয়ে খাদিজা আক্তার সোহাগকে বিয়ে করেন বাউশিয়া ইউনিয়নে মধ্য বাউশিয়া গ্রামে সুমন সরকার।

বিয়ের কয়েক মাস পর সুমন কুয়েত চলে যায়। কুয়েত থেকে স্ত্রী খাদিজা আক্তার সোহাগীর কাছে প্রতিমাসে টাকা পাঠাতেন। তার দেয়া ১০ ভরি স্বর্ণ ও নগদ ১৫ লাখ টাকা নিয়ে প্রেমিক ভবেরচর গ্রামের সাদেক খানের ছেলে রুবেল খানের সাথে পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করে গত ৯ এপ্রিল।

গত বৃহস্পতিবার এই বিয়ের খবর জানতে পারে সুমন এবং তার পরিবার। সুমন এবং তার পরিবার যেন থানা অভিযোগ করতে না পারে উল্টা সুমনের পরিবারের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনের অভিযোগ এনে গজারিয়া থানায় জিডি করে সোহাগী।

জুয়েল দেওয়ানের ফেবু থেকে

Leave a Reply