মুক্তারপুর সড়কের বেহাল দশা

মুন্সীগঞ্জ থেকে ঢাকা যাওয়ার প্রধান সড়কের বেহাল দশার সৃষ্টি হয়েছে। মুন্সীগঞ্জ জেলা সদরের মুক্তারপুর এলাকায় ঢাকা থেকে মুন্সীগঞ্জে প্রবেশ পথে বড় বড় খানা খন্দে প্রায়সই ঘটছে দুর্ঘটনা। একটু বৃষ্টি হতেই রাস্তায় পানি জমে নাকাল অবস্থা দেখা দেয়। নাই কোন ড্রেনেজ ব্যবস্থাও। এতে করে এই রুটে চলাচলরত মানুষের পড়তে হচ্ছে বিড়ম্বনায়।

মুন্সীগঞ্জ বাসির ঢাকা যাওয়ার অন্যতম প্রধান সড়ক মুন্সীগঞ্জ-ঢাকা সড়কটি মুন্সীগঞ্জ থেকে ঢাকা পর্যন্ত ২৬ কিলোমিটার। এ সড়কটি মুন্সীগঞ্জ শহরের পুরান বাসস্ট্যান্ড থেকে শুরু হয়ে পুরান ফেরি ঘাট হয়ে মুক্তারপুর চীন মৈত্রী সেতু(মুক্তারপুর সেতু) হয়ে নারায়গঞ্জের পঞ্চবটি হয়ে ঢাকার গুলিস্থান জিরো পয়েন্টে গিয়ে মিলিত হয়েছে। এর মধ্যে মুক্তারপর সেতুর দক্ষিণ পারে ঢাকা থেকে আসতেই মুন্সীগঞ্জের প্রবেশ দ্বারে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে দীর্ঘদিন যাবৎ। প্রায় এক কিলোমিটার রাস্তা জুড়ে এই নাকাল অবস্থা বিরাজ করছে দীর্ঘদিন। এতে প্রায়সই ঘটছে নানান দুর্ঘটনা। রিক্সা, ভ্যান, সিএনজি অটোরিকশা উল্টে অনেকে পঙ্গুত্ব বরণ করলেও কর্তৃপক্ষের মাথাব্যথা নাই।

মুন্সীগঞ্জ থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ঢাকা ও অন্যান্য স্থানে চলাচলের অন্যতম এই সড়কটি সংস্কার হওয়া জরুরি হয়ে পড়েছে। রাস্থার পাশে ড্রেনেজ ব্যবস্থার প্রয়োজন থাকলেও তা করা হচ্ছেনা বলেই রাস্তাটির নাকাল অবস্থা হচ্ছে বলেও অনেকের দাবি।

এলজিইডির সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী মো. আব্দুল আজিজ আশ্বাস দিয়ে জানান দ্রুতই মুন্সীগঞ্জ বাসির চলাচলের প্রধান এই সড়কটিকে সংস্কার করে তা সাধারণের চলচলের উপযোগি করে তোলা হবে। ঈদের সময় তাদের সরকারি ছুটি বন্ধ করে সড়ক সংস্কারে বাড়তি নজরদারীর কখাও বলেন তিনি।

আসছে ঈদুল ফেতরে সড়কে পড়বে বাড়তি চাপ তাই এই এলাকার মানুষের দাবি দ্রুত সড়কটির খানাখন্দসহ সংস্কার করে তা চলাচলের উপযোগি করা দরকার। অন্যথায় এ এলাকায় ঈদে ঘরমুখো মানুষের মুন্সীগঞ্জে ফিরতে চরম ভুগান্তির আংশকা বিরাজ করছে।

বিডি২৪লাইভ/এমকে

Leave a Reply