মুন্সীগঞ্জে গৃহবধূ লিজা হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

মুন্সীগঞ্জে গৃহবধূ লিজা হত্যার বিচার চেয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার নাগেরগাঁও গ্রামের শতাধিক নারী-পুরুষ। রোববার দুপুর ১২টায় মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে এ কর্মসূচি পালন করেন তারা। এ সময় তারা গৃহবধূ লিজা হত্যার সঙ্গে জড়িত তার স্বামী মো. আরশ মিয়া, শাশুড়ি ও ননদসহ জড়িত অন্য সব আসামিকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

পরে তারা জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, দেড় বছর আগে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার নাগেরগাঁও গ্রামের নূর মোহাম্মদের মেয়ে লিজার সঙ্গে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার বড় রায়পাড়া গ্রামের মোন্তাজ উদ্দিনের ছেলে আরশ আলীর বিয়ে হয়।

এর কিছু দিন পর স্বামী কুয়েত চলে যায়। বিয়ের পর থেকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন যৌতুকের জন্য লিজার ওপর অত্যাচার-নির্যাতন শুরু করে।

তাদের এ নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে ৯ মাস আগে লিজা বাবার বাড়ি ফিরে যান। পরে ১ নভেম্বর লিজার স্বামী দেশে ফিরে এসে লিজাকে বাড়ি নিয়ে যান।

৩ নভেম্বর সকালে লিজার মৃত্যুর খবর আসে বাবার বাড়িতে। খবর পেয়ে তার মাসহ আত্মীয়স্বজন রায়পাড়ায় গেলে তাদের ওপর হামলা চালায় লিজার শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

নিহতের স্বজনদের দাবি, লিজাকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন শ্বাসরোধে হত্যা করে আত্মহত্যা হিসেবে চালিয়ে দেয়ার জন্য ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখে। কিন্তু নিহতের পা মাটি স্পর্শ করে থাকায় এলাকাবাসীর সন্দেহ- এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড।

এ ব্যাপারে ওসি হারুণ রশিদ বলেন, থানায় অপমৃত্যুর মামলা করা হয়েছে। নিহতের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর খুনের আলামত পেলে হত্যা মামলা নেয়া হবে।

যুগান্তর

Leave a Reply