তুলি দিয়ে সমাজ দেখান

বাবুল হোসাইন সোহাগ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে চারুকলায় স্নাতক ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ও বন্ধুসভার বন্ধু। তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধুসভার সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। সম্প্রতি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বার্ষিক চিত্রকর্ম প্রদর্শনীতে পেইন্টিং বিভাগে তাঁর ‘স্ট্রাগল’ চিত্রকর্মের জন্য ‘অনারেবল মেনশন অ্যাওয়ার্ড-২০১৮’ পেয়েছেন।

সোহাগের জন্ম ও বেড়ে ওঠা মুন্সিগঞ্জ জেলার টঙ্গিবাড়ী উপজেলার মান্দ্রা গ্রামে। বাবা ইব্রাহিম মুন্সি পেশায় কৃষক, মা রাশেদা বেগম গৃহিণী। তিনি ৮ ভাইবোনের মধ্যে ৭ম। পড়াশোনা বিজ্ঞান বিভাগে বানারী বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়ে মাধ্যমিক ও টঙ্গী সরকারি কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক।

সোহাগ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে চারুকলায় প্রথম ব্যাচের শিক্ষার্থী। হাতে তুলি ধরেছেন ২০১৩ সালে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার প্রাক্তন শিক্ষার্থী কামরুল হাসানের সংস্পর্শে এসে আঁকতে শেখেন। তাঁর আঁকা ছবি ২০১৬ সালে প্রথম ঢাকার জয়নুল গ্যালারিতে ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী প্রদর্শনীতে স্থান পায়। ২০১৭ সালে সোনারগাঁও প্যান প্যাসিফিক গ্যালারিতে ‘ঢাকা ওয়াটার কনফারেন্স আর্ট এক্সিবিশন’ তাঁর ছবি উপস্থাপিত হয়। এ ছাড়া ২০১৮ সালে দৃক গ্যালারিতে ‘ফনিক্স অব লংগদু’ প্রদর্শনীতে, ষষ্ঠ রংত্তর আর্ট এক্সিবিশন (স্ট্রিট) ঢাকা, সুন্দরবনকেন্দ্রিক চিত্র প্রদর্শনী, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, শিল্পকলা একাডেমির তরুণ শিল্পকর্ম প্রদর্শনীতে তাঁর বিভিন্ন চিত্রকর্ম স্থান পায়।

সোহাগ তাঁর চিত্রকর্মে সমাজের বিভিন্ন চিত্র ফুটিয়ে তোলেন। তাঁর ‘অনারেবল মেনশন অ্যাওয়ার্ড-২০১৮’ পাওয়া ‘স্ট্রাগল’ চিত্রকর্মে আছে অন্য রকম চিন্তার প্রতিফলন। এই ছবিতে দেখা যায় টবের মধ্যে একটি বটগাছের চারা। এর মাধ্যমে ফুটে ওঠে বর্তমানে আমাদের সমাজের আবদ্ধ অবস্থা। এ ছাড়া তাঁর ছবি আঁকার বিষয়বস্তু হিসেবে তিনি বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই বেছে নিয়েছেন মা, শিশু, নারী এবং বর্তমান সমাজের সমস্যাগুলোকে।

সোহাগ শুধু আঁকাআঁকির মধ্যে সীমাবদ্ধ নন। তিনি আবৃত্তি ও মাইমের সঙ্গেও যুক্ত আছেন। তিনি ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইম সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আবৃত্তি সংসদের সহসভাপতি। বর্তমানে তিনি শিল্পচর্চাকে প্রাধান্য দিচ্ছেন। তিনি চান বিদেশ থেকে উচ্চতর ডিগ্রি নিয়ে দেশে ফিরে দেশীয় শিল্পকে আরও এগিয়ে নিতে, তুলির ছোঁয়ায় সমাজের চিত্র তুলে ধরতে এবং তুলি দিয়েই সমস্যার সমাধান আঁকতে।

প্রথম আলো

Leave a Reply