মেঘনা নদীতে ২ জলদস্যুকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

মুন্সীগঞ্জ সদরের বাহেরচর গ্রাম সংলগ্ন মেঘনা নদীতে সোমবার বিকেলে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দুই জলদস্যুকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা। জলদস্যু মো. আতিক ও মো. সোহাগ মেঘনার কুখ্যাত ডাকাত বাবলা বাহিনীর সদস্য বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আতিক মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার ষোলআনী গ্রামের মো. ইদ্রিস আলীর ছেলে ও সোহাগ চাদঁপুর জেলার মতলব উপজেলার মোহনপুর এলাকার শহীদুল্লাহ বেপারী ছেলে।

আরো পড়ুন: মিন্টো রোডে ভাদাইমার তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদ পুলিশের

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার তদন্ত ইন্সপেক্টর গাজী সালাহউদ্দিন জানান, ‘সোমবার বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে সদরের বাহেরচর গ্রাম সংলগ্ন মেঘনা নদীতে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল বাবলা বাহিনী। এ সময় গ্রামবাসী টের পেয়ে চারদিক থেকে ডাকাত বাহিনীকে ঘিরে ফেলে। এক পর্যায়ে ডাকাত বাহিনীর প্রধান বাবলাসহ অন্যান্যরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও আতিক ও সোহাগ গ্রামবাসীর হাতে ধরা পড়ে যায়। এ সময় উত্তেজিত গ্রামবাসী ওই ২ জলদস্যুকে গণপিটুনি দেয়। পরে গ্রামবাসী সদর থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহত অবস্থায় দুই জলদস্যুকে আটক করে।’

তিনি আরো জানান, ‘এ সময় পুলিশ ডাকাত বাহিনীর ব্যবহৃত একটি স্পিডবোট জব্দ করে পুলিশ। রাতে গুরুতর আহত অবস্থায় ওই ২ জলদুস্যকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।’

ইত্তেফাক

Leave a Reply