টঙ্গীবাড়ীতে রাস্তা পার হতে গিয়ে স্কুলছাত্রী নিহত

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলায় স্কুলের সামনের রাস্তা পার হতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত পূর্ণ বিশ্বাস (৬) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। নিহত পূর্ণ বিশ্বাস উপজেলার বলই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।

রবিবার (২০ অক্টোবর) ভোরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এর আগে শনিবার (১৯ অক্টোবর) দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার বলই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ছুটি শেষে বাড়ি ফেরার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, পূর্ণ বিশ্বাসের বাবা অমৃত বিশ্বাস তাকে এগিয়ে আনতে বলই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অপর প্রান্তে রাস্তা পার হচ্ছিলেন। এ সময় মেয়ে পূর্ণ বিশ্বাস বাবাকে দেখেই গাড়ি চলমান রাস্তার মধ্যে দিয়েই পার হতে চেষ্টা করে। বাবা অমৃত বিশ্বাস নিষেধ করলেও দৌড়ে রাস্তা পার সময় পল্লীবাইকের (স্থানীয় যান) ধাক্কায় লুটিয়ে পড়ে।

পরে তাকে উদ্ধার করে টঙ্গীবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে চিকিৎসা শেষে বাবার সঙ্গে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। কিন্তু শনিবার গভীর রাতে পূর্ণ বমি করা শুরু করলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করানো হয়। পরে রবিবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এলাকাবাসী জানান, মাওয়া-মুক্তারপুর মহসড়কের পাশে বলই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি। কিন্তু ওই স্কুলে সামনের রাস্তাটিতে কোনো স্পিড বেকার না থাকায় অহরহ দুর্ঘটনা ঘটছে।

এ ব্যাপারে বলই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এনামুল হক জানান, স্কুলের সামনে স্পিড বেকারের জন্য আমি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে বহুবার তদবির করেছি। কিন্তু তারা বলেছে মহাসড়কে স্পিড বেকার দেওয়া নিষেধ। এর আগেও ওই স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় বলই গ্রামের কামাল মোল্লা এবং শুক্কুর ঢালীর নামের দুই ব্যক্তির মৃত্যু হয় এবং আমাদের স্কুলের অপর এক ছাত্রী আহত হয়।

দৈনিক অধিকার

Leave a Reply