বাড়ৈখালীতে বেহাল রাস্তায় দুর্ভোগ চরমে

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার বাড়ৈখালী রাস্তার ইট উঠে গিয়ে যান চলাচলসহ ব্যাপক দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। রাস্তার করুণ অবস্থার পাশাপাশি রাস্তাটির ইছামতী খালের ওপর মির্মিত ব্রিজের অ্যাপ্রোচের ইট ও মাটি সড়ে গিয়ে মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। এতে করে স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী, চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও বৃদ্ধ মানুষ ব্রিজ পারাপারে ভোগান্তি হচ্ছে। উঁচু ব্রিজের বেহাল অ্যাপ্রোচ বেয়ে উঠতে-নামতে দুর্ঘটনার আশঙ্কা থাকছে।

ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্র সংলগ্ন স্কুলের পাকা রাস্তা থেকে পশ্চিম বাড়ৈখালী জলিল খাঁ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত প্রায় ৪শ ফুটের ইট সলিংয়ের রাস্তা। এই বেহাল রাস্তা ও ব্রিজের করুণ অ্যাপ্রোচের কারণে কোমলমতি শিক্ষার্থীসহ পথচারীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, প্রায় ৪শ ফুটের সংযোগ রাস্তার এক প্রান্তে বাড়ৈখালী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও অপর প্রান্তে জলিল খাঁ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় অবস্থিত। বেহাল ওই রাস্তায় বিদ্যালয় সংলগ্ন খালের ওপর ২০০০ সালে বিশ্ব ব্যাংক বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে নির্মিত প্রায় ১২ মিটার দৈর্ঘ্য একটি ব্রিজ রয়েছে। উঁচু ব্রিজের দুই পাশে রাস্তার ইট ও মাটি সড়ে গিয়ে মানুষের চলাচলে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে ব্রিজটি। মোটরসাইকেল নিয়ে ব্রিজ পারাপার তো দূরের কথা পায়ে হেঁটে ব্রিজে উঠতে নামতে হিমশিম খাচ্ছে এলাকাবাসী। অন্যদিকে ব্রিজের দুই পাশে রাস্তার মাটি সড়ে অ্যাপ্রোচ ভেঙে যাচ্ছে।

স্থানীয়রা জানায়, গত চার-পাঁচ বছর আগে সংযোগ রাস্তাটিতে ইট বিছানো হয়েছিল। এর পরে আর কোনো সংস্কার করা হয়নি। উঁচু ব্রিজের দুই পাশের ঢালুতে ইট উঠে যে বেহাল অবস্থা হয়েছে এতে করে ব্রিজে চলাফেরায় তাদের ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। স্কুলের ছোট ছোট বাচ্চাসহ বৃদ্ধদের জন্য আরও ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে ব্রিজটি। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জনগণের দুর্ভোগ লাঘবের জন্য এ বিষয়ে উপরমহলের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

বাড়ৈখালী ইউনিয়ন পরিষদের ২ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. নিয়নের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে পথচারীর দুর্ভোগের বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করে বলেন, সংস্কার কাজের জন্য তিনি ইউনিয়ন পরিষদে বরাদ্দ চেয়েছেন। বরাদ্দ পেলে এলাকাবাসীর দুর্ভোগ লাঘবের জন্য দ্রুত কাজ শুরু করবেন।

দৈনিক অধিকার

Leave a Reply