টঙ্গীতে চোর সন্দেহে পিটিয়ে যুবক হত্যা

আজ রবিবার ভোর রাতে টঙ্গীর দত্তপাড়া চাঁনকিরটেক এলাকায় চোর সন্দেহে কালা সেলিম (৩৫) নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করেছে এলাকাবাসী। নিহত সেলিমের দেশের বাড়ি মুন্সীগঞ্জ জেলার টঙ্গীবাড়ী থানার বেসনাল এলাকায়। তার পিতার নাম আবুল কাশেম। সে পরিবার-পরিজন নিয়ে টঙ্গীর এরশাদ নগর ৪ নং ব্লকে বসবাস করতো। নিহতের পরিবারের দাবী সেলিমকে চক্রান্ত করে চুরির অপবাদ দিয়ে একটি কুচক্রীমহল তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। অপরদিকে পুলিশ বলছে, নিহতের বিরুদ্ধে নানা অঘটনের অভিযোগ রয়েছে। সেসব কারণে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে তাকে পিটিয়ে মেরে ফেলেছে।

এলাকাবাসী ও টঙ্গী থানার ওসি কামাল হোসেন জনকন্ঠকে জানান, ভোররাত সাড়ে ৩ টার দিকে এরশাদ নগর ৫ নং ব্লকের আব্দুর রহিমের বাসার জানালার গ্রীল কাটার শব্দ পেয়ে বাড়ির লোকজন জেগে উঠে। এসময় তাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে কালা সেলিমকে ধরে ব্যাপক গণপিটুনি দেয়। এক পর্যায়ে এলাকাবাসী তাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে পিটুনি দিতে থাকলে ভোর ৫টার দিকে তার মৃত্যু ঘটে।

এদিকে নিহত সেলিমের স্ত্রী নাজমা আক্তার জনকন্ঠকে বলেন, আমার স্বামী চোর নয়। শনিবার রাতে ৫০০ টাকা নিয়ে পুলিশের সোর্স সেলিমের সঙ্গে দেখা করতে বাসা থেকে বের হয় আমার স্বামী। এলাকার কয়েক চিহ্নিত সন্ত্রাসী পরিকল্পিতভাবে আমার স্বামীকে পিটিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করেছে। তিনি আরো বলেন, গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্মমভাবে পিটুনির এক পর্যায়ে আমার স্বামী পানি খেতে চাইলেও তাকে পানি খেতে দেয়া হয়নি। আমি আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই।

জনকন্ঠ

Leave a Reply