মুন্সীগঞ্জে নতুন ১৫ জনসহ ৬৬ পুলিশ করোনা আক্রান্ত

মুন্সীগঞ্জে একদিনে ১৫ পুলিশের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এই নিয়ে জেলায় ৬৬ পুলিশের করোনা শনাক্ত হলো। সোমবার ১৫ জন পুলিশের করোনা শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে টঙ্গীবাড়ি থানার ৫ পুলিশ, গজারিয়া থানার ২ পুলিশ, গজারিয়া তদন্ত কেন্দ্রে ১ পুলিশ, সিরাজদিখান থানায় ১ পুলিশ, লৌহজং থানায় ২ পুলিশ, মুন্সীগঞ্জ সদর থানায় ২ পুলিশ, হাতিমারা তদন্ত কেন্দ্রে ১ পুলিশ এবং মুন্সীগঞ্জ পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে ১ পুলিশ সদস্যের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এছাড়াও কিছু সংখ্যক পুলিশ সদস্যের করোনা উপসর্গ থাকায় করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দিয়েছেন বা নমুনা দেয়ার চেষ্টা করছেন। সকলেই আইসোলেশনে বা কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।

সোমবার দুপুরে পুলিশের বিশেষ শাখার ইন্সপেক্টর প্রাণবন্ধু দাস সময় সংবাদকে এই আপডেট তথ্য দিয়ে বলেন, মুন্সীগঞ্জ জেলায় ১১০৬ জন পুলিশ কর্মরত রয়েছেন। তবে করোনার কারণে এদের মধ্যে একটি অংশ আইসোলেশনে বা কোয়ারেন্টাইনে থাকায় কার্যক্রম কিছুটা বিঘ্নিত হলেও পুলিশ যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে।

মুন্সীগঞ্জের পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন জানান, করোনা শনাক্ত ৬৬ জন পুলিশের মধ্যে ইতোমধ্যেই ১২ পুলিশ সদস্য করোনা জয় করেছেন। এদের কেউ কেউ কাজে যোগ দিচ্ছেন বা যোগ দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। আর যে সকল পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন, নিজেদের সুরক্ষা করেই দায়িত্ব পালনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রথম থেকেই কারোনা মোকাবেলায় সর্তকতার সাথে পুলিশ কাজ করে যাচ্ছিল। কিন্তু তারপরও পুলিশের বেশ ক’জন সদস্যের দেহে করোনা হলো।

এদিকে মুন্সীগঞ্জে করোনা শনাক্ত হাজার ছাড়িয়ে গেছে। ইতোমধ্যেই মুন্সীগঞ্জ জেলাকে রেড জোন হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। তারপরও সামাজিক দূরত্ব মানা হচ্ছে না। বিশেষ করে শিমুলিয়া ঘাটে এখনও লঞ্চ ও স্পীডবোটে করে গাদাগাদি করে পদ্মা পারপার হচ্ছে। দক্ষিণাঞ্চলের প্রবেশদ্বার শিমুলিয়া ঘাটে গাদাগাদি ভিড়ের কারণে সেখানে দায়িত্ব পালন করা পুলিশসহ অন্যান্যরাও কোভিড-১৯ সংক্রমণ ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন। এছাড়া জেলা শহর মুন্সীগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানে গণপরিবহনগুলো এবং মার্কেট ও হাট-বাজারে স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে করোনা সংক্রমণ বিস্তার ঘটছে।

সময় নিউজ টিভি

Leave a Reply