মুন্সীগঞ্জে নিখোঁজের ৩ দিন পর ভেসে উঠল কিশোরের লাশ

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় নিখোঁজের তিনদিন পর ব্যাটারিচালিত মিশুক চালক মো. তুহিন বেপারি (১৪) নামের এক কিশোরের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের ভোতারচর এলাকার মেঘনার শাখা নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় লাশটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

তুহিন বেপারি সদর উপজেলার হাটলক্ষ্মীগঞ্জ এলাকার মো. মামুন বেপারির ছেলে। সে ভাড়ায় মিশুক চালাত। একই এলাকার বন্ধু মেহেদীর (১৫) ভাড়ায় চালিত মিশুক চালাতে গিয়ে নিখোঁজ হয় সে।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিচুর রহমান জানান, নিখোঁজের তিনদিন পর মেঘনার শাখা নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় ওই কিশোরের লাশটি পাওয়া যায়। লাশটি গলিত অবস্থায় থাকায় আঘাতের চিহ্ন শনাক্ত করা যাচ্ছে না। এ ঘটনায় মিশুকের মালিক, তাঁর ভাতিজা অন্য একটি গ্যারেজ মালিক ও মিশুকের প্রকৃত চালকসহ চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সদর থানায় নিখোঁজের স্বজনরা একটি সাধারণ ডায়েরি করেছিলেন। পুলিশ বিস্তারিত খতিয়ে দেখছে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তুহিনের বাবা মামুন জানান, গত মঙ্গলবার মেহেদীর মিশুক নিয়ে বের হয় তুহিন। এর পর থেকেই তাঁর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে গতকাল শিলই এলাকা থেকে মিশুকটি পাওয়ার পর নিয়ে যায় মালিক কর্তৃপক্ষ।

এনটিভি

Leave a Reply