সিরাজদিখানে ছাত্রী ও গৃহবধূর আত্মহত্যা

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে একই দিনে স্কুল ছাত্রী ও এক গৃহবধূ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। শনিবার দিবাগত রাত ৯ টার দিকে উপজেলার জৈনসার ইউনিয়নের চাইনপাড়া গ্রামের নবম শ্রেণির ছাত্রী তামান্না (১৬) ও সাড়ে ৮ টার দিকে উপজেলার ইছাপুরা ইউনিয়নের চন্দনধুল গ্রামের গৃহবধু লিলি দে (২৯) ঘরের আঁড়ার সাথে দড়ি দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। তামান্না চাইনপাড়া গ্রামের আব্দুল হালিমের মেয়ে। তাকে উদ্ধার করে ঢাকা হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। মায়ের সাথে অভিমান করে সে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা যায়। এছাড়া লিলি দে পারিবারিক কলহের কারণে স্বামী সমীর দত্তের বাড়িতে আত্মহত্যা করেছে। দীর্ঘদিন পারিবারিক সমস্যায় মানষিক বিপর্যস্ত হয়ে পরেছিল সে। সে দুই সন্তানের জননী। তার বাবার বাড়ি উপজেলার মালখানগর ইউনিয়নের আরমহল গ্রামে।

সিরাজদিখান থানা অফিসার ইনচার্জ মো. ফরিদ উদ্দিন জানান, প্রাথমিক ভাবে জেনেছি কোন বিষয়ে মায়ের রাগারাগির কারণে অভিমান করে তামান্না আত্মহত্যা করেছে। লিলি পারিবারিক কলহের কারণে আত্মহত্যা করেছে। অফিসার পাঠিয়েছি তদন্ত চলছে।

ইনকিলাব

Leave a Reply